• বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    বাংলাদেশকে হুমকি মানছেন সাঙ্গা

    বাংলাদেশে এর আগেও খেলে গেছেন বেশ ক'বার। বিপিএলের অভিজ্ঞতাও এবারই প্রথম নয়, গত আসরে তো ঢাকা ডায়নামাইটসের অধিনায়কই ছিলেন কুমার সাঙ্গাকারা। এই আসরে অবশ্য অধিনায়ক ছিলেন না, তবে ডায়নামাইটসের হয়ে প্রথম শিরোপায় ম্যাচসেরা হয়েছেন সাঙ্গাকারা। এবারের অভিজ্ঞতা থেকে মনে করছেন, মার্চে শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ বেশ কঠিন পরীক্ষার সামনে ফেলবে স্বাগতিকদের। 


    জাতীয় দল থেকে পাকাপাকিভাবে অবসর নিয়েছেন গত বছরেই। তবে ক্রিকেটকে এখনো বিদায় বলেননি সাঙ্গাকারা, চুটিয়ে খেলে যাচ্ছেন বিভিন্ন ঘরোয়া লিগে। তবে এবারের বিপিএল অভিজ্ঞতা সাঙ্গার কাছে কিছু দিক দিয়ে বেশ অভিনব। সামনের বছর শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য বাংলাদেশকে অশনী সংকেত দেখছেন ম্যাথুসদের। 


    সর্বশেষ প্রায় দুই বছর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজে বিদেশের মাটিতে কোনো পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। এই মাসেই আবার নিউজিল্যান্ড উড়ে যাচ্ছেন মাশরাফিরা। তারপর মার্চে আবার শ্রীলঙ্কা সফর। সেখানে বাংলাদেশের উজ্জ্বল সম্ভাবনাই দেখছেন সাঙ্গা, "বাংলাদেশের তরুণরা যেভাবে খেলেছে তাতে আমি তো একটু ভয়ই পাচ্ছি। মার্চেই তো শ্রীলঙ্কার সঙ্গে সিরিজ। শ্রীলঙ্কার জন্য সিরিজটা সহজ হবে না। আমি দেখতে পাচ্ছি, বাংলাদেশের ফাস্ট বোলিংটা খুবই ভালো; স্পিনও ভালো করছে। তবে আমি মনে করি, তাদের সবচেয়ে বড় পরিবর্তন এসেছে ফিটনেসে। সবাই এখন আগের চেয়ে ফিটনেসের ব্যাপারে সচেতন হয়েছে, অনেক বেশি শক্তপোক্ত হয়েছে। তরুণ ব্যাটসম্যানরা আগের চেয়ে ভালো করছে। সংক্ষিপ্ত সংস্করণে বাংলাদেশের ভালো করার মতো অনেক কিছু আছে।"


    সাঙ্গার এমন প্রশংসাপত্র নিশ্চয় আলাদা করে অনুপ্রাণিত করবে মুশফিকদের। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন