• নিউজিল্যান্ড-বাংলাদেশ
  • " />

     

    সাকিবের ২ ওভারে দিনের শেষটাও বাংলাদেশের

    নিউজিল্যান্ড বনাম বাংলাদেশঃ ২য় টেস্ট ২য় দিনের খেলা শেষে

     

    বাংলাদেশ ১ম ইনিংস ২৮৯ (সৌম্য ৮৬, সাকিব ৫৯, নুরুল ৪৭; সাউদি ৫/৯৪, বোল্ট ৪/৮৭); নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস ২৬০/৭ (নিকোলস ৫৬*, টেলর ৭৭, ল্যাথাম ৬৮; সাকিব ৩/৩২, রাব্বি ২/৪৮)

     

    প্রথম দু’ সেশনে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলা নিউজিল্যান্ডকে ভালোই পথ দেখাচ্ছিলেন মিচেল স্যান্টনার আর ম্যাট নিকোলস। ৭৫ রানের জুটিতে দু’জনকেই বেশ থিতু মনে হচ্ছিল। স্বাগতিকরা বড় লিডই নিতে যাচ্ছে- এমন জল্পনাই যখন চলছে, সাকিব আল হাসানের উপর্যুপরি দুটো ওভার বাংলাদেশকে দারুণভাবেই ফিরিয়ে আনল খেলায়। বৃষ্টির কারণে দিনের খেলা বেশ খানিকটা আগেই শেষ হয়ে যাবার আগে নিউজিল্যান্ডের রান ছিল ৭ উইকেটে ২৬০।

     

    প্রথম সেশনে বল হাতে নেন নি, পরের সেশনে এক স্পেলে করলেন কেবল ৪ ওভার। কিউইদের টপ আর মিডল অর্ডারে বাঁহাতি ব্যাটসম্যানদের ছড়াছড়ি বলেই কিনা, সাকিবকে সেভাবে ব্যবহার করছিলেন না অধিনায়ক তামিম। তবে দুই বাঁহাতি স্যান্টনার-নিকোলসের জুটিটা ভাঙলেন ওই সাকিবই, তৃতীয় সেশনে ব্যক্তিগত দ্বিতীয় স্পেলে ফিরেই। এলবিডবলুর ফাঁদে ফেলে স্যান্টনারকে ২৯ রানে ফিরিয়ে পরের ওভারেই জোড়া আঘাতে নাড়িয়ে দিলেন স্বাগতিকদের মিডল অর্ডার। ওয়াটলিংকে ১ রানে বোল্ড করার পর গ্র্যান্ডহোমেরও স্ট্যাম্প ভেঙ্গে দেন দু’ বল বাদেই।

     

    বৃষ্টির কারণে এরপর দিনের খেলা আর দু’ ওভারের বেশী গড়ায় নি। তৃতীয় দিনে ম্যাচের মোড় কোনদিকে ঘুরবে সেটা সময়ই বলে দেবে, তবে দ্বিতীয় দিন শেষে ম্যাচে দু’ দলের নিয়ন্ত্রণ থাকলো সমান সমানই।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন