• শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে
  • " />

     

    টাকা পেতে লংকান বোর্ড কর্মচারীকে কাপড় খোলার নির্দেশ!

    জিম্বাবুয়ের কাছে সিরিজ হার, অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের সরে দাঁড়ানো; সবকিছু মিলিয়ে শ্রীলংকা ক্রিকেটের সময়টা একেবারেই ভালো যাচ্ছে না। এর মাঝেই সামনে এলো নতুন এক বিতর্ক। অভিযোগ এসেছে, হাম্বানটোটা স্টেডিয়ামের কর্মচারীদের বেতন পরিশোধের আগে কাপড় খুলতে বাধ্য করা হয়েছিল!

    জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ৩ ম্যাচের জন্য সাময়িকভাবে ১০০ জন কর্মচারী নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। তাঁদের বেতন ধরা ছিল দৈনিক ৬.৫ ডলার। সিরিজের শেষ ওয়ানডের পর বেতন নেওয়ার জন্য অফিসে যান সবাই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলা হয়েছে, বেতন পরিশোধের আগে শ্রীলংকা ক্রিকেটের লোগো সম্বলিত ট্রাউজার খুলে ফেরত দিতে বাধ্য করা হয়েছে। একজন কর্মচারীর ট্রাউজার খুলে হাটার ছবিও ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন মাধ্যমে। যেহেতু আগে থেকে এই ব্যাপারে তাঁদের জানানো হয়নি, ফলে তাঁদের অনেকের কাছেই অতিরিক্ত পায়জামা ছিল না। ফলে ওই মুহূর্তে সবাই বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছিলেন বলেই জানানো হয়।

    এদিকে এই ঘটনায় জড়িত থাকা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড, “যারা এই ঘটনার জন্য দায়ী তাঁদের বিরুদ্ধে শক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বোর্ডের পক্ষ থেকে ওই কর্মচারীদের কাছে ক্ষমা চাওয়া হচ্ছে। তাঁরা অবশ্যই নন্যায়বিচার পাবেন।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন