• ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নস কাপ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    নেইমারের গোলেই ইউনাইটেডকে হারাল বার্সা

    প্রথম ম্যাচে তাঁর জোড়া গোলেই জুভেন্টাসকে হারিয়েছিল দল। ওয়াশিংটন স্টেডিয়ামে ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নস কাপের দ্বিতীয় ম্যাচেও বার্সেলোনার জয়ের নায়ক সেই নেইমারই। তাঁর একমাত্র গোলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছে কাতালানরা।

    ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে খেলা। ‘এমএসএন’ ত্রয়ী অবশ্য একটু বেশিই চাপে রেখেছিল মরিনহোর দলকে। বেশ কয়েকটি সুযোগ এলেও সেটা কাজে লাগাতে পারেননি মেসিরা। ইউনাইটেড গোলরক্ষক ডি গেয়ার দারুন কিছু সেভে বেঁচে যায় দল। এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন পগবারাও। কিন্তু বার্সা গোলরক্ষকের কল্যাণে গোল হজম করতে হয়নি।

    দুই দলের সুযোগ মিসের মহরার পর অবশেষে ৩১ মিনিটে আসে কাংখিত সেই গোল। মেসির বাড়ানো বল ফেরাতে গিয়ে পড়ে যান ইউনাইটেডের ভ্যালেন্সিয়া, ডি বক্সে সৃষ্টি হয় ছোটোখাটো এক জটলার। সেটার ফায়দা নিয়ে দারুন এক ফিনিশিংয়ে দলকে এগিয়ে দেন এই ব্রাজিলিয়ান। প্রথমার্ধে সব মিলিয়ে গোলপোস্টে ১২ টি শট নেন নেইমাররা।

    দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য মেসি, নেইমার ও সুয়ারেজ তিনজনকেই উঠিয়ে নেয় বার্সা। ফলে বার্সার আক্রমণের ধার অনেকটাই কমে আসে। উল্টোদিকে ইউনাইটেডের র‍্যাশফোর্ড ও লুকাকু জুটি বার্সা ডিফেন্সকে ব্যস্ত রেখেছে পুরো সময়টাই।তবে গোল আর আসেনি। ফলে নেইমারের ওই এক গোলের সুবাদেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সা।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন