• অ্যাশেজ ২০১৭-১৮
  • " />

     

    • অ্যাশেজ ২০১৭-১৮

    এক ইনিংসে দুই ভাইয়ের সেঞ্চুরি

     

    টম কুরানের বলে ব্যাকফুটে গিয়ে ব্যাটে বল লাগিয়েই দিলেন দৌড়। সেঞ্চুরি পূরণের আনন্দে বড় ভাই শন মার্শ পিচের মাঝপথেই জড়িয়ে ধরলেন মিচেল মার্শকে। উদযাপনের মুহূর্তে দুজন বেমালুম ভুলে গেলেন যে, রানটাই পূর্ণ করেননি! ডাগআউটে থাকা অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ তো সেখান থেকে চিৎকার করে বলছিলেন রান পূর্ণ করতে, দুজনের কান্ডে তাঁর মাথায় হাত। মিচেলের আগেই সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন শন। ২০০১ সালের স্টিভ ও মার্ক ওয়াহর পর এই প্রথম একই ইনিংসে দুই ভাইয়ের সেঞ্চুরি দেখল ক্রিকেট বিশ্ব।

     

    দুর্দান্ত অভিষেকের পর দলে অনিয়মিত হয়ে পড়া, মার্শ সহোদরের ক্যারিয়ারের গল্পটা এমনই। এবারের অ্যাশেজের শুরুতে শন মার্শ একাদশে থাকলেও ছিলেন না মিচেল। পিটার হ্যান্ডসকম্বের বদলে দলে ঢুকেই বাজিমাত করেছেন। সিডনি টেস্টের চতুর্থ দিনে দুজনই সেঞ্চুরি করেছেন, ১৬৯ রানের জুটির কল্যাণে বড় লিড পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এই প্রথম দুজন একই ইনিংসে সেঞ্চুরি করলেন।

     

    ইয়ান চ্যাপেল-গ্রেগ চ্যাপেলঃ

     

     

    চ্যাপেল ভাইদের একসাথে করা প্রথম সেঞ্চুরি আসে ১৯৭৪ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। ওয়েলিংটনে প্রথম ইনিংসে গ্রেগ করেন অপরাজিত ২৪৭ রান, ইয়ান করেন ১৪৫।

    ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেও দুই ভাই একসাথে সেঞ্চুরির দেখা পান। গ্রেগ করেছিলেন ১৩৩ রান, ইয়ানের রান ছিল ১২১। এরপর আরও একবার দুই ভাই একই ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন। মোট ৩ বার এক ইনিংসে সেঞ্চুরি করে সবার ওপরে আছেন তাঁরাই।

     

    স্টিভ ওয়াহ-মার্ক ওয়াহঃ

    এক ইনিংসে ওয়াহ ভাইদের সেঞ্চুরি আছে দুইবার। ১৯৯৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ২০০১ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একই ইনিংসে সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন স্টিভ ও মার্ক। ২০০১ সালে ওভালে স্টিভ করেছিলেন ১৫৭, মার্ক করেন ১২০। দুই মার্শের সেঞ্চুরির পাওয়ার আগ পর্যন্ত সেটাই ছিল একই ইনিংসে দুই ভাইয়ের সেঞ্চুরি পাওয়ার শেষ ঘটনা।  

     

    অ্যান্ডি ও গ্রান্ট ফ্লাওয়ারঃ 

    ১৯৯৫ সালে হারারেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন অ্যান্ডি ও গ্রান্ট ফ্লাওয়ার দুজনেই। ২৬৯ রানের জুটি গড়েন দুজন, যা ক্রিকেটে দুই ভাইয়ের মাঝে সর্বোচ্চ জুটি। গ্রান্ট করেন ২০১ রান, অ্যান্ডি করেছিলেন ১৫৬।

     

    মুশতাক ও সাদিক মোহাম্মদঃ 

    ১৯৭৬ সালে হায়দ্রাবাদে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে মুশতাক ও সাদিক মোহাম্মদ দুজনেই পেয়েছিলেন সেঞ্চুরি। দুজনেই করেছিলেন ১০৩ রান।