• মেয়েদের ক্রিকেট
  • " />
    X

     

    ছেলেদের ওয়ানডেতে নারী আম্পায়ার

    নারী আম্পায়ার হিসেবে তাঁর ঝুলিতে আছে অনেক রেকর্ড। অস্ট্রেলিয়ান আম্পায়ার ক্লেয়ার পোলোসাকের মুকুটে যোগ হচ্ছে সাফল্যের আরেকটি পালক। প্রথম নারী আম্পায়ার হিসেবে ছেলেদের ওয়ানডে ম্যাচে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন তিনি। ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় বিভাগের ফাইনালে নামিবিয়া ও ওমানের ম্যাচে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করে ইতিহাস গড়বেন পোলোসাক।

    ২০১৫ সাল থেকে আইসিসি ইভেন্টে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন পোলোসাক। প্রথমে ওই বছরের ডিসেম্বরে গিয়েছিলেন থাইল্যান্ড। সেখানে প্রমীলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে দায়িত্ব পালন করেছিলেন পোলোসাক। এরপর ২০১৬ সালের মার্চে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বেও দেখা গেছে তাকে।

    মেয়েদের ৫০ ওভারের বিশ্বকাপেও দায়িত্ব পালন করেছেন পোলোসাক। ২০১৭ সালে প্রথম নারী আম্পায়ার হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার পুরুষদের লিস্ট এ ম্যাচে দায়িত্ব পালন করে রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। গত বছর পোলোসাক ও আরেক অস্ট্রেলিয়ান আম্পায়ার এলোসি শেরিডান প্রথম নারী আম্পায়ার জুটি হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে পেশাদার ম্যাচ পরিচালনাও করেছিলেন।

     

     

    এবার পোলোসাক হয়ত দাঁড়াতে যাচ্ছেন নিজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে। নামিবিয়াতে হতে যাওয়া ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় বিভাগের ফাইনালে দুইজন আম্পায়ারের মাঝে তিনি একজন। আজকের ম্যাচের আগে আইসিসির পক্ষ থেকে এসেছে এই ঘোষণা। এতে ইতিহাসের প্রথম নারী আম্পায়ার হিসেবে পুরুষদের ওয়ানডে ম্যাচে দায়িত্ব পালন করবেন পোলোসাক। 

    আইসিসির এমন সিদ্ধান্তে যারপরনাই খুশি পোলোসাক, ‘আম্পায়াররা দুই দলেরই সদস্য। অন্য যে আম্পায়ার থাকে, তাঁর সাথে বোঝাপড়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পুরুষদের ওয়ানডে ম্যাচ পরিচালনার খবরে আমি দারুণ খুশি। আমার নিউ সাউথ ওয়েলসের সতীর্থ আম্পায়াররা, আমার স্বামী ইভানসকে ধন্যবাদ দিতে চাই। তাদের ছাড়া এতদূর আসতেই পারতাম না।’

    হয়ত কোন একদিন ছেলেদের বিশ্বকাপেও দেখা যাবে পোলোসাককে!