• উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    • উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ

    ইস্কোকে চান গার্দিওলা, রিয়ালে আসছেন মানে?

    রিয়ালে আসছেন মানে?

    রিয়াল মাদ্রিদের হটসিটে ফেরার পর থেকেই সাদিও মানেকে দলে নিতে রীতিমত উঠেপড়ে লেগেছিলেন জিনেদিন জিদান। এডেন হ্যাজার্ডের পর ফরোয়ার্ড লাইন শক্তিশালী করতে মানেকেই পছন্দ জিদানের, জানিয়েছিল মার্কা। হ্যাজার্ডকে দলে ভেড়ানোর পর এবার মানের জন্য লিভারপুলকে প্রস্তাব জানাবে রিয়াল, সেজন্য ফরোয়ার্ড মার্কো আসেন্সিওকে ছাড়তেও রাজি তারা, জানিয়েছে এএস।

    গত মৌসুমে আসেন্সিওকে দলে নিতে রিয়ালকে প্রস্তাব দিয়েছিল লিভারপুল। সেবার রাজি না হলেও মানের জন্য 'সোয়্যাপ ডিল'-এ আসেন্সিওকে ছাড়তে চায় রিয়াল, জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। গত মৌসুমে আসেন্সিওকে চাইলেও এবার অবশ্য এ ব্যাপারে কিছু জানায়নি লিভারপুল। এ বছর প্রিমিয়ার লিগে ওয়াটফোর্ডের বিপক্ষে ম্যাচের পর জিদানের অধীনে খেলার ইচ্ছাও জানিয়েছিলেন মানে। শেষ পর্যন্ত মানে-আসেন্সিওর গন্তব্য জানতে তাই অপেক্ষাই করতে হচ্ছে।

    রাবিওকে 'ফ্রি'তে পাচ্ছে জুভেন্টাস?

    আন্দ্রেয়া পিরলো, পল পগবা, স্যামি খেদিরা। 'ফ্রি'তে ফুটবলারদের দলে ভেড়াতে জুড়ি নেই জুভেন্টাসের। এবার সে তালিকায় যুক্ত হচ্ছেন ফ্রেঞ্চ মিডফিল্ডার আদ্রিয়ান রাবিও, জানিয়েছে গাজেত্তা দেল্লো স্পোর্ট। প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের সাথে গত মৌসুমেই চুক্তি শেষে এখন 'ফ্রি এজেন্ট' রাবিও। সেই সুযোগটাই কাজে লাগাচ্ছে জুভেন্টাস, জানিয়েছে লেকিপ।

    প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের হর্তাকর্তাদের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে ক্লাবের হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দিয়েছিলেন রাবিও। রিয়াল, বার্সেলোনার সাথে কথা হলেও শেষ পর্যন্ত তুরিনেই পাড়ি জমাচ্ছেন রাবিও, জুভেন্টাসের প্রস্তাবে মৌখিক সম্মতিও দিয়েছেন তিনি; জানিয়েছেন ইতালিয়ান সাংবাদিক জিয়ানলুকা ডি মার্জিও।

     

     

    ইস্কোকে চান গার্দিওলা?

    আগামী মৌসুম শেষে ম্যানচেস্টার সিটি ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন ডেভিড সিলভা। এখন থেকেই তাই সিলভার বদলি খোঁজার শুরু করেছে সিটিজেনরা। ডেইলি মিরর জানিয়েছে, সিলভার বদলি হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার ইস্কোকেই পছন্দ পেপ গার্দিওলার।

    রিয়ালের প্রায় বছর ছয়েক কাটিয়ে দিলেও এখনও একাদশে জায়গা পাকা করতে পারেননি ইস্কো। ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জনও প্রতি মৌসুম শেষেই ফিরে আসে তার। ইস্কোর জন্য ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতেও সমস্যা নেই সিটির, জানিয়েছে মিরর। জিদানের একাদশেও গত মৌসুমে তেমন সুযোগ পাননি তিনি। সব মিলিয়ে ভবিষ্যতে হয়তো সিটির জার্সিতেই দেখা যেতে পারে ইস্কোকে। 

    সানেকে পাচ্ছে না বায়ার্ন?

    গত মাসেও তার বায়ার্ন মিউনিখে যোগ দেওয়াটা সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছিল। কিন্তু জার্মান সংবাদপত্র বিল্ড জানিয়েছে, লিরয় সানেকে দলে নেওয়া হচ্ছে না জার্মান চ্যাম্পিয়নদের। সানেকে ছাড়বে না ম্যানচেস্টার সিটি, বায়ার্নের সব প্রস্তাবই ফিরিয়ে দিয়েছে তারা।

    ম্যান সিটিতে চ্যাম্পিয়নস লিগ বাদে সবই জিতেছেন সানে। কিন্তু পেপ গার্দিওলার 'রোটেশন' পলিসির জন্য একাদশে প্রত্যাশামত জায়গা পাচ্ছিলেন না তিনি। সেজন্য সানের দিকেই চোখ ছিল বায়ার্নের। কিন্তু গার্দিওলা নিজেই সানেকে আশ্বস্ত করেছেন, আগামী মৌসুমে আরও সুযোগ পাবেন তিনি; জানিয়েছে ডেইলি মেইল। বিল্ড জানিয়েছে, সেজন্যই সানেকে দলে নেওয়ার পরিকল্পনাও বাতিল করেছে বায়ার্ন।