• উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    • উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ

    'বুড়ো' নাকামুরা যোগ দিলেন বুড়োদের দলে

    অভিজ্ঞতার ওপর জাপানিজ দ্বিতীয় বিভাগের ক্লাব ইয়োকোহামা এফসির একটু বেশিই। ২০০৫ সাল থেকে খেলে আসা  স্ট্রাইকার কাজুইয়োশি মিউরার বয়স এখন ৫২, গত ৫ বছর ধরে তার চুক্তি নবায়ন করে আসছে তারা। অভিজ্ঞতার ওপর নিজেদের আস্থার প্রমাণ আরও একবার দিল ইয়োকোহামা এফসি। এবার ৪১ বছর বয়সী সিনসুকে নাকামুরাকে দলে নিয়েছে তারা।

     

     

    ১৯৯৭ সালে পেশাদারি ফুটবলে অভিষেক হয়েছিল নাকামুরার। ২০০৫ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত সেল্টিকে খেলার সময়ই ইউরোপের বড় ক্লাবগুলোর নজর কেড়েছিলেন। সেল্টিকের হয়ে টানা তিনবার জিতেছিলেন স্কটিশ প্রিমিয়ার লিগ, দু'বার করে জিতেছেন স্কটিশ কাপ এবং লিগ কাপ। ২০০৭ সালে স্কটিশ লিগের বর্ষসেরা ফুটবলারের খেতাবও পেয়েছিলেন তিনি। এস্পানিওলের হয়ে খেললেও ইনজুরির কারণে ফর্ম ধরে রাখতে পারেননি, খেলাও হয়নি ইউরোপের বড় কোনও ক্লাবে। নাকামুরার বয়সটা চল্লিশের কোঠায় পৌঁছালেও মিউরা মনে করেন; ইয়োকোহামার জাপানিজ প্রথম বিভাগে ফেরানোর সামর্থ্য আছে নাকামুরার, 'জে লিগে (জাপানিজ প্রথম বিভাগ) ফিরতে সিনসুকে আমাদের তুরুপের তাসে হবে এবার।'

    মিউরার নিজের ক্যারিয়ারও যেন সিনেমার মতই। ১৯৮৬ সালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব এফসি সান্তোসের হয়ে অভিষেক হয়েছিল তার। সেই ২০০৫ থেকে ইয়োকোহামায় খেলছেন তিনি। তার চেয়েও বয়সে ছোট অনেকেই এখন কোচিংয়ে, কিন্তু গত চার বছর ধরে চুক্তি নবায়ন করে আসছেন মিউরা। ২০১৭ সালে জাপানিজ কাপে গোল করে ভেঙ্গে দিয়েছিলেন ইংলিশ ফুটবলার স্যার স্ট্যানলি ম্যাথিউসের সবচেয়ে বয়সী ফুটবলার হিসেবে গোল করার রেকর্ড। সবচেয়ে অবাক করা ব্যাপার হল; জাপানের হয়ে ৮৯বার মাঠে নেমেছিলেন মিউরা, অবসর নিয়েছেন ১৯ বছর আগে, ২০০০ সালে!