• অ্যাশেজ
  • " />

     

    মাথায় আঘাত পাওয়া ক্রিকেটারদের বদলি নামানোর সিদ্ধান্ত আইসিসির

    মাথায় আঘাত পেয়ে খেলা চালিয়ে যেতে না পারার ঘটনা গত কয়েক বছরে কম ঘটেনি। এই বিশ্বকাপেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আফগানিস্তানের রশিদ খান মাথায় আঘাত পাওয়ার কারণে বোলিং করতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়ান ঘরোয়া ক্রিকেটে কয়েক মৌসুম ধরেই 'কনকাশন টেস্টে' উতরাতে না পারা ক্রিকেটারদের বদলি নামানোর নিয়ম করা হয়েছে। শোনা যাচ্ছিল, আইসিসিও একই নিয়ম করতে পারে। অবশেষে গতকাল আইসিসির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, এখন থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ও ঘরোয়া ক্রিকেটে কেউ মাথায় আঘাত পেয়ে খেলার অবস্থায় না থাকলে তার বদলি খেলোয়াড় নামাতে পারবে দল।

    আইসিসি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ান ঘরোয়া ক্রিকেটের বদলি খেলোয়াড়ের নিয়মে সন্তুষ্ট হয়েই তারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এটার প্রচলন ঘটাতে যাচ্ছেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে দুই বছরের পরীক্ষামূলক প্রচলনের পর আইসিসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এখন থেকে পুরুষ ও নারীদের আন্তর্জাতিক ও প্রথম শ্রেণির ম্যাচে কেউ 'কনকাশন টেস্টে' উতরাতে না পারলে বদলি খেলোয়াড় নামানো যাবে।’ 

    দলটি বদলি খেলোয়াড় নামাতে পারবে কিনা, সেই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন বিশেষজ্ঞ একটি চিকিৎসক দল ও ম্যাচ রেফারি, ‘আঘাত পাওয়া খেলোয়াড় খেলা চালিয়ে যেতে পারবেন, নাকি তাকে বদলি করতে হবে; সেই ব্যাপারে মেডিকেল দলের পরামর্শের পর ম্যাচ রেফারি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন। যাকে বদলি করা হচ্ছে, তার পরিবর্তে ওই পজিশনের খেলোয়াড়কেই নিতে হবে।’ 

    আইসিসির নতুন এই নিয়ম চালু হবে আগামী অ্যাশেজ থেকে। ১ আগস্ট এজবাস্টনে শুরু হবে এবারের অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম টেস্ট।