• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    ফাইনালের ওই ওভার থ্রোর সিদ্ধান্তে আইসিসিও ধর্মসেনার পক্ষে

    বিশ্বকাপ ফাইনালে বেন স্টোকসের ব্যাটে লেগে হওয়া সেই ওভার থ্রো নিয়ে গত দুই সপ্তাহে কম আলোচনা হয়নি। কয়েকদিন আগে সেই ওভার থ্রোর সিদ্ধান্ত দেওয়া আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনাও স্বীকার করেছিলেন, ছয় রান দেওয়ার সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল। এবার আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার জিওফ অ্যালারডিস ইএসপিএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ফাইনালে ওই বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দেওয়ার সময় সঠিক পদ্ধতিই অনুসরণ করেছিলেন ধর্মসেনা। 

    ম্যাচের শেষ ওভারে স্টোকসের ব্যাটে লেগে হওয়া ওভার থ্রোতে মোট ছয় রান দিয়েছিলেন ধর্মসেনা। আইসিসির নিয়ম ও সাবেক বর্ষসেরা আম্পায়ার সাইমন টফেলসহ অনেকেই বলেছেন, পাঁচ রান পাওয়া উচিত ছিল ইংল্যান্ডের। শেষ পর্যন্ত ওই বাড়তি এক রানের কারণেই ম্যাচ টাই হয়। ফাইনালের দুই সপ্তাহ পর ধর্মসেনাও স্বীকার করে নেন, পাঁচ রান দেওয়া উচিত ছিল তাঁর। তবে ওই মুহূর্তে টিভি রিপ্লে দেখতে না পারায় ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। যদিও এটা নিয়ে তাঁর কোনো আফসোস নেই বলেই জানিয়েছিলেন ধর্মসেনা। 

    আইসিসির জেনারেল ম্যানেজার জিওফ জানিয়েছেন, ধর্মসেনা সঠিক নিয়ম মেনেই সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন, ‘রান নেওয়ার সময় দুই ব্যাটসম্যান একে অন্যকে অতিক্রম করেছে কিনা সেটা দেখেই সিদ্ধান্ত দিতে হতো। সেই বলে যতকিছু হয়ে গেছে, এরপর দুই আম্পায়ার একসাথে কথা বলেই সিদ্ধান্তটা দিয়েছেন। তাঁরা সঠিক নিয়মই অনুসরণ করেছিলেন। ওই মুহূর্তে তৃতীয় আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নেওয়ার মতো পরিস্থিতি ছিল না। ম্যাচ রেফারিও তাই এই ব্যাপারে কিছু করতে পারতেন না।’ 

    ফাইনালে কি যৌথ বিজয়ী করা যেতো না? অ্যালারডিস অবশ্য এখনো সুপার ওভারের পক্ষেই আছেন, ‘আমরা সবসময়ই চেয়েছি ফাইনালে একটা বিজয় দল থাকুক। ২০১১, ২০১৫ ও ২০১৯; তিন বিশ্বকাপের আগেই সিদ্ধান্ত হয়েছিল যে ম্যাচ টাই হলে জয়ী দল নির্বাচন করা হবে সুপার ওভারের মাধ্যমে।’