• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    ইউসিএল বাছাইপর্ব : পোর্তো, সেল্টিক বাদ, আয়াক্স পরের রাউন্ডে

    চ্যাম্পিয়নস লিগ বাছাইপর্ব দেখল নাটক আর রোমাঞ্চভরা এক রাত। সাবেক দুই চ্যাম্পিয়ন পোর্তো ও সেল্টিক বাদ পড়েছে তাতে। গতবারের সেমিফাইনালিস্ট আয়াক্স আমস্টারডামও আরেকটু হলে পা হড়কাতে বসেছিল। তবে পাওকেকে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৪ গোলে হারিয়ে শেষ পর্যন্ত প্লে-পফ নিশ্চিত করেছে আয়াক্স।

    গ্রিক ক্লাব পাওকের সঙ্গে প্রথম লেগে ২-২ গোলে ড্র করে ফিরেছিল আয়াক্স। আমস্টারডামের ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় সাবেক আয়াক্স একাডেমি খেলোয়াড় ডিয়েগো বিসেভার গোল করে এগিয়ে নেন পাওকেকে। ঘরের সমর্থকদের স্নায়ুচাপ আরও বেড়ে যায় দুসান টাডিচ পেনাল্টি মিস করার পর। অবশ্য অন্যরকম এক রাত কাটিয়েছেন শেষ পর্যন্ত টাডিচ। প্রথমার্ধেই পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে ফিরিয়ে আনেন তিনি ম্যাচে।

    দ্বিতীয়ার্ধে পাওকে গোলরক্ষক অ্যালেক্সান্দ্রোস পাসচালাকিস বেশ কিছু দারুণ সেভ করে লাগাম টেনে রেখেছিলেন আয়াক্সের। ৮৫ মিনিটে টাডিচের আরেকটি পেনাল্টি গোল ও ৯০ মিনিটে নিকোলাস টালিয়াফিকোর হেডে করা গোলে এরপর প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায় আয়াক্সের জয়। তবে সেই বিসেভোও ইনজুরি সময়ে আরেক গোল করে স্নায়ুক্ষয়ী এক সমাপ্তি এনে দেন ম্যাচে। আরেক গোল হজম করলেই বাদ পড়তে হত আয়াক্সকে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য আর কোনো নাটক হয়নি। প্লে-অফে আয়াক্সের প্রতিপক্ষ সাইপ্রাসের ক্লাব অ্যাপোয়েল নিকোসিয়া। দুই লেগের ওই ম্যাচ জিতলেই এই মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলা নিশ্চিত হবে ডাচ চ্যাম্পিয়নদের। 

    সাবেক চ্যাম্পিয়ন রেডস্টার বেলগ্রেডও নিশ্চিত করেছে প্লে অফ। এফসি কোপেনহেগেনের সঙ্গে দুই লেগ মিলিয়ে ২-২ গোলে ড্র করার পর খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। এরপর অদ্ভুত এক টাইব্রেকারে মোট ২২ পেনাল্টির পর ফল আসে ম্যাচে, সার্বিয়ান ক্লাবের নিশ্চিত হয় প্লে অফ।

    ২০০৪ সালের চ্যাম্পিয়ন পোর্তো বাদ পড়েছে ঘরের মাঠে। রাশিয়ান ক্লাব ক্রাসনোডারের সঙ্গে ১-০ গোলে অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতে এসেছিল তারা। কিন্তু গতবার পর্তুগিজ লিগে দ্বিতীয়  হওয়া দলটি দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে ৩৪ মিনিটেই তিন গোল হজম করে বসে। পরে অবশ্য দুই গোল শোধ করেছিল পোর্তো, তবে অ্যাওয়ে গোল নিয়ম চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় ঠেকাতে পারেনি তাদের। পোর্তো না পারলেও বেলজিয়ান ক্লাব ক্লাব ব্রুজ ডায়নামো কিয়েভকে হারিয়ে প্লে অফ নিশ্চিত করেছে।

    স্কটিশ চ্যাম্পিয়ন সেল্টিকও হেরেছে ঘরের মাঠ সেল্টিক পার্কে। ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল প্রথম লেগ। রোমানিয়ান ক্লাব সিএফআর ক্লুজ এরপর দ্বিতীয় লেগে সেল্টিককে হারিয়ে দিয়েছে ৩-৪ গোলে। সেল্টিকের কপাল পুড়েছে ম্যাচের ৯৭ মিনিটে, ইনজুরি সময়ের শেষ মুহুর্তে এসে গোল হজম করে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বাদ পড়েছে তারা।


    একনজরে প্লে অফের দলগুলো ও তাদের প্রতিপক্ষ (প্রথম দল ঘরের মাঠে খেলবে প্রথম লেগ)

    অ্যাপোয়েল নিকোসিয়া-আয়াক্স 
    সিএফআর ক্লুজ-স্লাভিয়া প্রাগ
    লাস্ক-ক্লাব ব্রুজ
    ডায়নামো জাগরেব-রোজেনবার্গ
    অলিম্পিয়াকোস-ক্রাসনোডার
    ইয়াং বয়েজ-রেডস্টার বেলগ্রেড