• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    • ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ

    ইউনাইটেডে যোগ দেওয়া নিয়ে কোনো আফসোস নেই সানচেজের

    চিলিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যালেক্সিস সানচেজ বলেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়া নিয়ে কোনো আফসোস নেই তার। ইউনাইটেডে যোগ দেওয়ার ১৮ মাস পর ধারে ইন্টার মিলানে যোগ দিয়েছেন সানচেজ। বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাতকারে সানচেজ জানিয়েছেন নিয়মিত সুযোগ পেলে ইউনাইটেডে হয়ত ভালো করতে পারতেন তিনিও।  

    দেড় বছর বয়সে মোট ৪৫ ম্যাচ খেলে সানচেজ গোল করেছেন ৫টি। ইউনাইটেডের ৭৭টি ম্যাচের মাত্র ৩১টি একাদশে শুরু করেছিলেন সানচেজ, এর মধ্যে পুরো ৯০ মিনিট খেলেছেন মাত্র ১৩টি ম্যাচ। এর আগে ২০১৪ সালে আর্সেনালে যোগ দিয়ে ১৬৬ ম্যাচে তার গোল ছিল ৮০টি। এর ভেতর ২০১৭ সালে হয়েছিলেন প্রিমিয়ার লিগের সেরা ফুটবলারও। ইউনাইটেডে যোগ দিয়ে ফর্ম হারালেও সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল না বলে মনে করেছেন সানচেজ, "আমি খুবই খুশি যে আমি ম্যান ইউনাইটেডে যোগ দিয়েছিলাম। আমি সবসবমই বলেছি এটা হচ্ছে এমন ক্লাব যারা ইংল্যান্ডে সবচেয়ে বেশি জিতেছে।"

    "আর্সেনালে যোগ দিয়ে আমি খুশি ছিলাম। কিন্তু তখন ইউনাইটেড উন্নতি করছিল, তারা নতুন খেলোয়াড় দলে ভিড়িয়ে শিরোপা জেতার চেষ্টা করছিল। আমি সেখানে যোগ দিয়ে সবকিছু জিততে চেয়েছিলাম, ইউনাইটেডে যোগ দেওয়া নিয়ে আমার কোনো আফসোস নেই।" 

    ইউনাইটেডের হয়ে বেঞ্চে বসে সময় পার করলেও সে সময়ে জাতীয় দলের হয়ে ভালো খেলে যাচ্ছিলেন সানচেজ। গোলও পাচ্ছিলেন নিয়মিত। জাতীয় দল আর ক্লাবে এতোখানি পার্থক্য হওয়ার কারণটাও জানাচ্ছেন ৩০ বছর বয়সী।

    "আমার মনে হয় জাতীয় দলে খেলার সময় আমি বেশ আনন্দে থাকি। ইউনাইটেডেও বেশি খুশি ছিলাম, কিন্তু বন্ধুদের আমি বলতাম আমি নিয়মিত খেলতে চাই। আমাকে যদি তারা খেলতে দেয় তাহলে আমি আমার সেরাটাই দেব। আমি হয়ত ৬০ মিনিট খেললাম, এরপর দেখা যেত পরের ম্যাচে খেলানোই হলো না আমাকে। আমি জানিনা কেন এমন হচ্ছিল।"

    হতাশাজনক এক মৌসুম শেষে এরপর  কোপা আমেরিকায় চিলির হয়ে খেলেছেন সানচেজ। সেখানেও উজ্জ্বল ছিলেন। তবে ক্লাবে ফিরেই আর কোনো প্রীতি ম্যাচের দলেও জায়গা হয়নি তার। সানচেজ তাই বলছেন, এসব নিয়ে তাকে জিজ্ঞেস না করে ওলে গানার সোলশারের দ্বারস্থ হতে, "আমার মনে হয় আমি কোপায় ভালোই করেছি। এরপর আমাকে না খেলানো নিয়ে বরং কোচকেই প্রশ্ন করা উচিত।"

    ইন্টার মিলানে যোগ দিয়ে সেখানকার নাম্বার সেভেন জার্সিই গায়ে চড়াচ্ছেন সানচেজ। দুই ম্যাচে দুই জয় নিয়ে সিরি আতে ভালো শুরু করেছে তার ক্লাব।