• দক্ষিণ আফ্রিকার ভারত সফর
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    বুমরার পর বাংলাদেশের সাথে থাকছেন না পান্ডিয়াও?

    আগামী মাসে ঘরের মাটিতে টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট সিরিজে বাংলাদেশকে আতিথিয়তা দেবে ভারত। সেই সিরিজের আগে খানিকটা দুঃসংবাদ পেল বিরাট কোহলির দল। পিঠের ইনজুরির কারণে এই সিরিজে নাও খেলতে পারেন অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। একই ইনজুরির কারণে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা নিয়ে সংশয় আছে পেসার জাসপ্রীত বুমরারও। 

    গত বছর এশিয়া কাপ চলার সময় পিঠের ইনজুরির কারণে ম্যাচের মাঝপথেই মাঠ ছাড়তে হয়েছিল পান্ডিয়াকে। সেই ইনজুরিটা আবার ফিরে এসেছে। বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে হয়তো নিশ্চিতভাবেই খেলতে পারছেন না পান্ডিয়া, ‘পান্ডিয়া যুক্তরাজ্যে যাচ্ছেন ডাক্তার দেখাতে, এই ডাক্তার এশিয়া কাপের ইনজুরির পর তাকে দেখেছিল। তিনি নিশ্চিতভাবেই বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে থাকছেন না।’ 

    আগামী বছর অস্ট্রেলিয়াতে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেই টুর্নামেন্টের আগে পান্ডিয়াকে পুরোপুরি সুস্থই দেখতে চাইবে ভারত। তাই যদি অস্ত্রোপচার করতেই হয়, তাহলে পাঁচ থেকে ছয় মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে পান্ডিয়াকে, জানিয়েছেন বিসিসিআইয়ের সেই কর্মকর্তা, ‘দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজে টিম কম্বিনেশনের জন্য পান্ডিয়াকে নেওয়া হয়নি। কিন্তু বিজয় হাজরা ট্রফিতে সে খেলতে পারছে না ইনজুরির কারণে। সবাই আশা করছেন তার যেন অস্ত্রোপচার না লাগে। নাহলে তিনি আগামী আইপিএলের আগে মাঠে ফিরতে পারবেন না।’ 

    পান্ডিয়ার মতো পিঠের ইনজুরিতে পড়েছেন বুমরাও। এই ইনজুরির কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন তিনি। ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করতে পান্ডিয়ার সাথে তিনিও যুক্তরাজ্যে যাচ্ছেন। তার ফিরতেও প্রায় দুই মাসের মতো লাগতে পারে, টাইমস অফ ইন্ডিয়া বলছে এমনটাই।

    গত দুই বছরে বেশ কয়েকবার ক্লান্তি দূর করার জন্য বুমরাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলেননি তিনি। যুক্তরাজ্য থেকে কবে ফিরবেন বুমরা, কবে যোগ দেবেন দলের সাথে, সেটা এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। 

     

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন