• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    দ্য হান্ড্রেড-এর ড্রাফটে সাকিব-তামিমসহ ৬ বাংলাদেশী

    ‘দ্য হান্ড্রেড’-এর ড্রাফটে সাকিব আল হাসান ছাড়াও আছেন আরও পাঁচজন বাংলাদেশী। ১৬৫ জন বিদেশী ক্রিকেটারদের তালিকায় বাংলাদেশ থেকে সাকিব ছাড়া নাম লিখিয়েছেন তামিম ইকবাল, মোহাম্মদ মিঠুন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুশফিকুর রহিম ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। এর মাঝে তামিমের ইংল্যান্ডের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ ব্লাস্টে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। 

    ২০ অক্টোবর হবে ইংল্যান্ডের নতুন এই টুর্নামেন্টের ড্রাফট। সেখানে বিভিন্ন ভিত্তিমূল্যের ক্যাটাগরিতে আছেন ইংল্যান্ড ছাড়াও বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, নেপাল, আয়ারল্যান্ডসহ ১১টি দেশের ক্রিকেটাররা। একমাত্র ভারতীয় হিসেবে আছেন হারভাজান সিং, তবে বিসিসিআইয়ের নিয়ম অনুযায়ী এ টুর্নামেন্টে খেলতে হলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিতে হতে পারে এই অফস্পিনারকে। 

    ভিত্তিমূল্যে সর্বোচ্চ ক্যাটাগরি ১২৫০০০ পাউন্ড- সেখানে আছেন ৮ জন ক্রিকেটার- অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, ডেভিড ওয়ার্নার, দক্ষিণ আফ্রিকার কুইন্টন ডি কক, লুঙ্গি এনগিডি, কাগিসো রাবাদা, শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল। 

    এর পরের ক্যাটাগরির ভিত্তিমূল্য ১০০০০০ পাউন্ডে আছেন ১৭ জন। এখানে সাকিব ছাড়া আছেন হারভাজান, আন্দ্রে রাসেল, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, রশিদ খান, তামিম ইকবাল, সন্দিপ লামিচানে, শাহিদ আফ্রিদি, ডোয়াইন ব্রাভো, সুনিল নারাইন ও কাইরন পোলার্ড, শেন ওয়াটসন, অ্যারন ফিঞ্চ, ক্রিস লিন, কেন উইলিয়ামসন, রশিদ খান। 

    ইসিবির ক্রিকেট প্রসারের নীতির কারণে একাধিক বাংলাদেশী ও আফগান ক্রিকেটারকে দেখা যেতে পারে এই টুর্নামেন্টে। রশিদ ছাড়াও ড্রাফটে থাকা অন্য আফগান ক্রিকেটাররা হলেন- কাইস আহমেদ, জাহির খান, গুলবাদিন নাইব, মোহাম্মদ নবি, মুজিব উর রহমান। একমাত্র নেপাল ক্রিকেটার হিসেবে আছেন লামিচানে, আর একমাত্র আইরিশ ক্রিকেটার পল স্টার্লিং। যদিও স্টার্লিংয়ের বৃটিশ পাসপোর্ট আছে, তবে এখানে তাকে বিবেচনা করা হচ্ছে বিদেশী হিসেবেই। 

    আটটি শহরভিত্তিক দল খেলবে নতুন ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টে। ইংল্যান্ড ক্রিকেটারদের প্রাথমিক ড্রাফটও হয়ে গেছে এরই মাঝে। বিদেশী ক্রিকেটারদের ড্রাফটের মাধ্যমে প্রতিটি স্কোয়াড নিতে পারবে তিনজন ক্রিকেটার করে, প্রতিটি ম্যাচে একাদশেও থাকতে পারবেন সর্বোচ্চ তিনজন।