• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    শ্রীলংকায় মিরাজের ৭ উইকেটের পর মুমিনুলের সেঞ্চুরি

    দ্বিতীয় দিন শেষে

     

    শ্রীলংকা এ ২৬৮ অলআউট

    বাংলাদেশ এ ৬৭ ওভারে ২৮৩/৬

    বাংলাদেশ এ ৪ উইকেট হাতে রেখে ১৫ রানে এগিয়ে


    টেস্টে ৭ উইকেট পেয়েছেন আগে, দেশের মাটিতে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও সেই অর্জন হয়েছে মেহেদী হাসান মিরাজের। তবে দেশের বাইরে প্রথম শ্রেণিতে ৭ উইকেট ছিল না। মুমিনুল হকের যেমন টেস্টে ৮ সেঞ্চুরির সবকটি ঘরের মাঠে। এবার প্রথম শ্রেণিতে সেঞ্চুরি পেলেন ঘরের বাইরে। দুটি অর্জনই হলো একই দিনে, আজ শ্রীলংকা এ দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ এ দলের হয়ে চার দিনের ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে। দ্বিতীয় দিন শেষে ৪ উইকেট হাতে রেখে শ্রীলংকার চেয়ে ১৫ রান এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ এ।

    কাল ৫ উইকেটে ২২৩ রান নিয়ে প্রথম দিন শেষ করেছিল শ্রীলংকা এ।  আজ সকালে চারিথ আসালাংকা ও লাহিরু উদারা মিলে আরও ৪১ রান যোগ করে ফেলেছিলেন। শ্রীলংকার হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ার শুরু এর পরেই। শুরুটা করেন মিরাজই, ৮৮তম ওভারে উইকেটের পেছনে তার বলে ক্যাচ দিয়েছেন উদারা। এক বল পরেই নিশান পেরিস কোনো রান না করে হয়ে যান এলবিডব্লু, মিরাজ পেয়ে যান পাঁচ উইকেট।

    পরের ওভারে আর উইকেট যায়নি, এর পরের ওভারে আবার মিরাজ। এবার দ্বিতীয় বলে প্রভাত জয়াসুরিয়া ক্যাচ দেন মিরাজকে, এক বল পর মোহাম্মদ সিরাজ ক্যাচ দেন মুমিনুলকে। সাত উইকেট হয়ে যায় মিরাজের। আসালাংকা অবশ্য এক প্রান্তে ছিলেন, সালাউদ্দিন শাকিলের পরের ওভারে আউট হয়ে যান তিনিও। মাত্র ৪ রানে শেষ ৫ উইকেট হারিয়ে বসে শ্রীলংকা এ, অলআউট হয়ে যায় ২৬৮ রানেই। ৮৪ রানে ৭ উইকেট নিয়ে বোলিং শেষ করেন মিরাজ।

    বাংলাদেশ এ ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায়, জহুরুল ইসলাম আউট হয়ে যান সিরাজের বলে। নাজমুল হোসেন শান্তও টেকেননি বেশিক্ষণ, ৯ রান করে আউট হয়ে যান সেই শিরাজের বলে। সাদমান ইসলাম ও মুমিনুলের জুটিতে এরপর ম্যাচে ফেরে বাংলাদেশ এ । তৃতীয় উইকেটে দুজন যোগ করেন ১৫৪ রান। সেটাও ওয়ানডে গতিতেই, মাত্র ৩৫ ওভার খেলেই। শেষ পর্যন্ত ১০৪ বলে ৭৭ রান করে ফেরেন সাদমান, উইকেট নিয়েছেন জয়াসুরিয়া। মুমিনুল অবশ্য সেঞ্চুরি মিস করেননি, তবে শেষ করে আসতে পারেননি দিন। ১৯০ বলে ১১৭ রান করে আউট হয়ে গেছেন। তার আগেই অবশ্য ২১ রানে ফিরে গেছেন মোহাম্মদ মিঠুন, আর ৮ রান করে আউট হয়ে গেছেন এনামুল হক বিজয়। দিনের শেষে ২৯ বলে ৩৫ রানের ঝড়ো একটা ইনিংস খেলে অপরাজিত আছেন নুরুল হাসান, অন্যদিকে আছেন মেহেদী হাসান মিরাজও। ৬ উইকেটে ২৮৩ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ এ।