• বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের ধর্মঘট
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ১১ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা


    হঠাৎ করেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে একটা বিস্ফোরণ। এতদিন এ দেশের ক্রিকেটে যা হয়নি, আজ হয়েছে সেটাই। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহসহ সব পেশাদার ক্রিকেটাররা এককাট্টা হয়েছেন তাদের দাবি পূরণে। মিরপুর একাডেমিতে আজ সংবাদ সম্মেলন করে নিজেদের ১১ দফা দাবি পেশ করেছেন। সেটা পূরণ না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্ট কাল পর্যন্ত ধর্মঘটে যাচ্ছেন সব ক্রিকেটাররা। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত জাতীয় দলের ক্যাম্প থেকে কোনো ধরনের ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ডেই অংশ নেবেন না তারা।  

    কিছু একটা যে হতে যাচ্ছে, সেই আভাস কদিন থেকে পাওয়া যাচ্ছিল সাকিবের সাক্ষাৎকারে। সিপিএল শেষে দেশে ফিরে জাতীয় কয়েকটি গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন সাকিব, সেখানে সরাসরি অভিযোগ করেছেন ক্রিকেটারদের বঞ্চিত করা হচ্ছে প্রাপ্য সুবিধা থেকে। আজ দুপুরে হুট করেই সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা। দুপুর থেকেই মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে একধরনের চাপা উত্তেজনা। বেলা আড়াইটার দিকে সেখানে আসেন তাসকিন আহমেদ। অন্য ক্রিকেটাররা অবশ্য খানিকটা সন্তর্পণে জমায়েত হতে শুরু করেন অন্যদিকে।


    ক্রিকেটারদের ১১ দফা দাবির বিস্তারিত


    দুপুর তিনটার কিছু পরে মিরপুর একাডেমিতে একে একে প্রবেশ করতে থাকেন ক্রিকেটাররা। নাঈম ইসলামের পর একে একে কথা বলেন মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, এনামুল হক জুনিয়র, এনামুল হক বিজয়, ফরহাদ রেজা, জুনাইদ সিদ্দিকী, নুরুল হাসান সোহান। সবশেষে সাকিব কথা বলে ইতি টানেন সংবাদ সম্মেলনের। কথা না বলেও উপস্থিত ছিলেন মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েসসহ জাতীয় দলের প্রায় সব ক্রিকেটার। ছিলেন অলক কাপালি, মার্শাল আইয়ুবদের মতো ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিজ্ঞরাও। 

    প্রায় ১৩ মিনিটের এই সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের দাবিগুলো গুছিয়ে বলেছেন ক্রিকেটাররা। ক্রিকেটারদের অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, প্রিমিয়ার লিগে সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি, বিপিএল, পাতানো ম্যাচ বন্ধে পরিকল্পনা প্রণয়নসহ মোট ১১ দফা দাবি রয়েছে এখানে শেষে সাকিব বললেন, সময়ের স্বল্পতার জন্য নারী ক্রিকেটারদের আজ থাকার জন্য বলতে পারেননি, তবে তাদের যৌক্তির দাবির সপক্ষে কথা বলবেন তারা। আপাতত অনূর্ধ্ব ১৯ ও বয়সভিত্তিক দলগুলোকে এই দাবি থেকে বাইরে রাখা হবে। 

    ২৫ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল ভারত সফরের প্রস্তুতি ক্যাম্প। জাতীয় ক্রিকেট লিগের পরের রাউন্ড শুরু হওয়ার কথা ২৩ অক্টোবর থেকে। এই মুহুর্তে এনসিএল ছাড়াও চলছে প্রথম বিভাগ টি-টোয়েন্টি লিগ, ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়ার কথা তৃতীয় বিভাগ লিগ। ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে থমকে যাচ্ছে সব।    

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন