• বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের ধর্মঘট
  • " />

     

    মাঠে ফিরছেন ক্রিকেটাররা, ধর্মঘট প্রত্যাহার

    ফলপ্রসু হয়েছে ক্রিকেটারদের সঙ্গে বিসিবি প্রধান ও কর্তাদের বৈঠক। ক্রিকেটারদের মূল ১১ দফা দাবির প্রায় সবগুলোই মেনে নিয়েছে বিসিবি। সবকিছু ঠিক থাকলে শনিবার থেকে মাঠে ফিরছেন ক্রিকেটাররা, সেদিনই শুরু হবে জাতীয় লিগ। তার এক দিন আগে শুরু জাতীয় দলের ক্যাম্প।   

    সকাল থেকে আজ নাটক চলতে থাকে দিনভর। গত পরশু সাকিবের নেতৃত্বে ১১ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটে যায় ক্রিকেটাররা। পরের দিন সংবাদ সম্মেলন করে বিসিবি সভাপতি বলেন, দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার জন্য একটা চক্রান্ত চলছে। সেই ষড়যন্ত্রে জড়িত দুয়েকজন ক্রিকেটারের নাম খুব শিগরির বের করা হবে বলেও তিনি জানান। একই সঙ্গে বেশ আগ্রাসীভাবেই বলেন, খেলতে না চাইলে তার কিছু করার নেই। তবে বেশির ভাগ দাবি পূরণের বলে তিনি জানান।

    পরের দিন আজ সকালে বিসিবি প্রধান নির্বাহী বলেন, ক্রিকেটারদের কথা শোনার জন্য বিকেল পাঁচটা থেকে বিসিবিতে থাকবেন নাজমুল হাসান পাপনসহ অন্যান্য পরিচালকেরা। এরপর বিসিবি সভাপতি গণভবনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেন। এর মধ্যেই ক্রিকেটাররা বিকেলে সংবাদ সম্মেলন ডাকেন। সেখানে তাদের পক্ষ থেকে আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান বলেন, আরও দুইটি অতিরিক্ত দাবি যোগ করা হয়েছে। সেই দাবির মধ্যে আছে বিসিবির মুনাফার ভাগ ক্রিকেটারদের দেওয়া এবং মেয়ে ক্রিকেটারদের বেতন বৈষম্য কমানো।


    আরও পড়ুন: ক্রিকেটারদের জন্য বোর্ড না বোর্ডের জন্য ক্রিকেটাররা?


    এরপর ক্রিকেটাররা নিজেদের ভেতর বৈঠক করে বিসিবিতে রওনা দেন। রাত নয়টার পর বিসিবিতে বৈঠক শুরু হয় দুই পক্ষের। প্রায় ঘন্টা দেড়েক বৈঠকের পর দুই পক্ষ বেরিয়ে আসেন। এরপরেই নাজমুল হাসান বলেছেন, ক্রিকেটারদের বেশির ভাগ দাবিই মেনে নেওয়া হবে। এর মধ্যে এক নম্বর দাবি, অর্থাৎ ক্রিকেটারস অ্যাসোয়েশন কোয়াবের বর্তমান কমিটি ভেঙে নতুন করে গঠন করা নিয়ে বিসিবির কোনো এখতিয়ার নেই বলে জানান বিসিবি সভাপতি। সেই কাজ ক্রিকেটারদেরই করতে হবে বলে জানিয়েছেন। বাকি দাবিগুলো ধাপে ধাপে পূরণ করার আশ্বাস দিয়েছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ক্রিকেটাররা ধর্মঘট প্রত্যাহার করছেন। শনিবার থেকেই মাঠে ফিরছেন। কাল থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল জাতীয় লিগের তৃতীয় রাউন্ড। এক দিনের নোটিশে খেলা শুরু সম্ভব নয় বলে বিসিবি এই রাউন্ড বাতিল করার পরামর্শ দিয়েছিল। তবে ক্রিকেটাররা খেলতে চান, সেই হিসেবে তিন দিন পিছিয়ে শনিবার থেকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তৃতীয় রাউন্ড। আর ভারত সফরের আগে ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা ২৫ অক্টোবর শুক্রবার, জাতীয় দলের অন্য ক্রিকেটাররা সেদিন থেকেই যোগ দেবেন ক্যাম্পে। তবে মুনাফা ভাগাভাগি ও মেয়েদের ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা হয়নি বলে জানিয়েছেন নাজমুল হাসান। সেই দুই দাবি মাত্রই জেনেছেন, সেগুলো নিয়ে পরে আলোচনা করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন।

    সাকিবও বলেছেন, যে আজকের আলোচনার ভিত্তিতে তারা আবার মাঠে ফিরছেন। কোয়াবের ব্যাপারে যত দ্রুত নির্বাচন করে সেটা ঠিক করতে চান এবং সেটা জাতীয় লিগ এই রাউন্ডের পর হতে পারে বলে জানিয়েছেন। স্পষ্ট করে বলেছেন, তারা চান এখন খেলছেন এমন ক্রিকেটারদের মধ্য থেকেই যেন প্রতিনিধি নির্বাচন করা হয়। বছরে দুইটির বেশি ফ্র্যাঞ্চাইলি টুর্নামেন্তে খেলার নিয়ম উঠিয়ে দেওয়ার দাবি নিয়ে বিসিবির সভাপতির কথা- এটা 'কেস টু কেস' বিবেচনা করে করা হবে। লভ্যাংশ ভাগাভাগিসহ নতুন দুইটি দাবি নিয়ে আলোচনা হয়নি, সেটাও বলেছেন। সব দাবিদাওয়া প্রয়োগ না হওয়া পর্যন্ত ‘খুশি’ কি না সেটাই নিয়েও মন্তব্য করতে পারছেন না তিনি। এরপরেই আর কোনো প্রশ্ন না নিয়ে সংবাদ সম্মেলন কক্ষ ত্যাগ করেন সবাই।