• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী দলের সহকারি কোচ হলেন ওয়ালশ

    ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের পরেই কোর্টনি ওয়ালশের সাথে চুক্তি শেষ হয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। বাংলাদেশের সাবেক এই বোলিং কোচ এবার দায়িত্ব নিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের নারী ক্রিকেট দলের। ওয়ালশকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মেয়েদের সহকারি কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বোর্ড। 

    গত মাসে নারী ক্রিকেট দলের নতুন কোচ হিসেবে গাস লজিকে নিয়োগ দিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ড। যদিও তাকে সাময়িকভাবেই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে, এখনো পূর্ণ মেয়াদে দায়িত্ব নিতে পারেন এমন কোচ খুঁজছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এখন থেকে লজির সহকারি হিসেবেই কাজ করবেন ওয়ালশ। টিম ম্যানেজমেন্টে যোগ দিয়েছেন সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যান রায়ন গ্রিফথও। তাদের দুইজনকেও অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে। এই দুইজনকে সাথে পেয়ে উচ্ছ্বসিত ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারী দলের হেড কোচ, ‘ওয়ালশ ও গ্রিফিথ ওয়েস্ট ইন্ডিজের অন্যতম সেরা দুই ক্রিকেট মস্তিষ্কের অধিকারী। তারা মেয়েদের সাথে অনুশীলনে কঠোর পরিশ্রম করছে। আশা করি মাঠেই এটার সুফল আসবে।’ 

    ওয়ালশ বলছেন, দলের বোলারদের নিয়ে বেশি মনযোগী হবেন তিনি, ‘আমি বোলারদের দিকেই বেশি মনোযোগ দেবো। এছাড়া দলকে একত্রে রাখার জন্য সব চেষ্টাই করা হবে। আমি গাসের সাথে কাজ করতে পেরে দারুণ খুশি। একই দলে খেলার সৌভাগ্য আমাদের হয়নি। আমি মেয়েদের যা বলেছি সেটা তারা খুব মনোযোগ দিয়েই শুনেছে। আমি নতুন যা বলেছি সেটাকে অনুশীলন করার ব্যাপারে তারা একটুও ভয় পাচ্ছে না। আমি আগেও মেয়েদের ক্রিকেটে নির্বাচক হিসেবে কাজ করেছি, অনুশীলনের সময়ও ছিলাম। তাই অনেকেই আমাকে চেনে। তারা জানে, আমি তাদের জন্য সেরাটাই চাই।’ 

    ওয়ালশ ও গ্রিফিথ ছাড়াও এভরিল লুইসকে নারী দলের অন্তর্বর্তীকালীন ম্যানেজার নিয়োগ দিয়েছে বোর্ড। বোর্ডের ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট জিমি অ্যাডামস নতুন নিয়োগ পাওয়া কোচদের সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদী, ‘গাস ও পুরো কোচিং স্টাফের ওপর আমার ভরসা আছে। তারা আমাদের দলকে এগিয়ে নেবেন। গাস দুই বছর ধরে মেয়েদের দলের সাথে আছেন। ওয়ালশ ও গ্রিফিথকে নিজেদের জ্ঞানকে দলের মাঝে ছড়িয়ে দেবেন, এতেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাফল্যের মন্ত্রটা পাবে মেয়েরা।'