• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    কিক অফের আগে : মাঝিবিহীন বায়ার্ন আর রোনালদোর রাশিয়া যাত্রা

    চ্যাম্পিয়নস লিগ বলেই দুশ্চিন্তা কম বায়ার্নের 
    নিকো কোভাচকে বিদায় করে দেওয়ার পরের অধ্যায় শুরু করছে বায়ার্ন মিউনিখ। এই মৌসুমে কোভাস ম্যাচ হেরেছিলেন মাত্র তিনটি। কিন্তু বায়ার্ন আর কোভাচের সম্পর্ক সেভাবে ছন্দ তুলতে পারেনি কখনই।আইনট্রাখট ফ্রাঙ্কফুর্টের কাছে ৫-১ গোলের হারটাই তাই ছন্দ পতনের কারণ হয়ে গেছে।

    চ্যাম্পিয়নস লিগ আর প্রতিপক্ষ অলিম্পিয়াকোস বলেই মাঝিবিহীন নৌকা নিয়েও দুশ্চিন্তা কিছুটা কম বাভারিয়ানদের। গ্রুপে এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচের সব কয়টিই জিতেছে বায়ার্ন, এর ভেতর আছে টটেনহামকে ৭-২ গোলে উড়িয়ে দেওয়া জয়ও। অলিম্পিয়াকোসকে ঘরের মাঠে হারিয়ে দিলেই দ্বিতীয় রাউন্ডটাও নিশ্চিত হয়ে যাবে রবার্ট লেভানডফস্কিদের। 

    বায়ার্নের চ্যাম্পিয়নস লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা নিয়ে অবশ্য সংশয় ছিল না কখনই। অলিম্পিয়াকোস গ্রিসে আধিপত্য করলেও ইউরোপে বরাবরই নখদন্তহীন। টটেনহামের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে এখন পর্যন্ত তাদের অর্জন এক পয়েন্ট, অবস্থান সবার নিচে। শেষ ম্যাচে অবশ্য বায়ার্নের বিপক্ষে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল অলিম্পিয়াকোস। এর পরও লেভানডফস্কির জোড়া গোলে ম্যাচ তারা ম্যাচ হেরেছিল ৩-২ ব্যবধানে।    

    বুন্দেসলিগায় বায়ার্নের অবস্থান চারে। চ্যাম্পিয়নস লিগে অবস্থা পুরোপুরি উলটো। আর দুই জায়গাতেই সমান উজ্জ্বল লেভানডফস্কি। এরই মধ্যে চলতি মৌসুমে ২০ গোল করা হয়ে গেছে তার। অলিম্পিয়াকোসের বিপক্ষে সেটা আরও বাড়িয়েই নিতে চাইবেন তিনি। অলিম্পিয়াকোস তাই মিউনিখে নামবে কোনোরকম কোনো প্রত্যাশা ছাড়াই। 

    কবে, কখন 
    বায়ার্ন মিউনিখ-অলিম্পিয়াকোস 
    গ্রুপ 'বি'
    ৬ নভেম্বর রাত ১২:৫৫ 

     


     চ্যাম্পিয়নস লিগ ফিক্সচার দেখুন এখানে



    রোনালদোর রাশিয়া যাত্রা 
    রাশিয়ায়, আরও স্পষ্ট করে বললে মস্কোতেই প্রথমবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সেই রাশিয়াতে আবার ফিরছেন তিনি, এবার জুভেন্টাসের হয়ে। লুঝনিকি অবশ্য নয়, লোকোমোটিভের মাঠে। দুই সপ্তাহ আগে এই লোকোমোটিভের সঙ্গে হারতে হারতে জুভেন্টাস জিতেছিল। রাশিয়ার মাঠে তাই কাজটা একেবারেই সহজ হবে না জুভেন্টাসের। 


    আরও পড়ুনঃ জোড়া গোলে জুভেন্টাসকে উদ্ধার করলেন দিবালা 


    গ্রুপে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও জুভেন্টাস ৭ পয়েন্ট নিয়ে আছে এক ও দুইয়ে। ৪ পয়েন্ট নিয়ে লোকোমোটিভের স্বপ্ন এখনও টিকে আছে পরের রাউন্ডে যাওয়ার। তবে হেরে গেলে জুভেন্টাস আর অ্যাটলেটিকোর কাজ হয়ে যাবে বেশ সহজ। জুভেন্টাস চলে যাবে পরের রাউন্ডে, আর নিজেদের ম্যাচে লেভারকুসেনকে হারাতে পারলে অ্যাটলেটিকোও সঙ্গী হবে তাদের।

    রাশিয়ায় মোট ১২ ম্যাচে রোনালদোর গোল ১২টি। বেশিরভাগই অবসহ্য জাতীয় দলের হয়ে। রাশিয়ার ক্লাবের বিপক্ষে তিন ম্যাচ খেলে রোনালদো গোল করেছেন তিনটি। এই মৌসুমে এখনও চ্যাম্পিয়নস লিগে সেভাবে জ্বলে উঠতে পারেননি ৩৪ বছর বয়সী। রাশিয়ায় তিনি জ্বলে উঠলে জুভেন্টাসের কাজটাও সহজ হয়ে যাবে অনেক।

    কবে, কখন 
    লোকোমোটিভ মস্কো-জুভেন্টাস 
    গ্রুপ ডি 
    ৬ নভেম্বর, রাত ১১.৫৫