• ভারতের নিউজিল্যান্ড সফর
  • " />

     

    রেকর্ড রান-তাড়ায় অবশেষে ভারত-গেরো খুলল নিউজিল্যান্ড

    ভারত ৫০ ওভারে ৩৪৭/৪ (শ্রেয়াস ১০৩, রাহুল ৮৮* কোহলি ৫১; সাউদি ২/৮৫)

    নিউজিল্যান্ড ৪৮.১ ওভারে ৩৪৮/৬ (টেলর ১০৯*, নিকোলস ৭৮, লাথাম ৬৯; কুলদীপ ২/৮৪)

    ফল: নিউজিল্যান্ড ৪ উইকেটে জয়ী


    জয়ের স্বাদটা ভুলে গিয়েছিল কিউইরা। সব ফরম্যাট মিলিয়ে শেষ ৮ ম্যাচে একবারও মাথা উঁচু করে মাঠ থেকে বের হতে পারেননি কিউই ক্রিকেটাররা। সঙ্গে ভারতের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঘরের মাঠে ৫-০ তে সিরিজ হারের ক্ষত তো ছিলই। সেজন্য ভারতের ৩৪৮ রানের পাহাড়সম লক্ষ্যটা হয়তো আরও বড় মনে হচ্ছিল নিউজিল্যান্ডের জন্য। কিন্তু রেকর্ড রান তাড়ায় সেই লক্ষ্যটা টপকে গেছে তারা।

    অথচ এই ম্যাচের আগে চোটের কারণে দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন একাদশেই ছিলেন না। তাই দলের ব্যাটিংয়ের এই কাণ্ডারিকে ছাড়া নিউজিল্যান্ড কতটা কী করতে পারবে সেই সংশয় তো ছিলই। কিন্তু রস টেলর, হেনরি নিকোলস আর টম লাথামের ব্যাটেই সেই সংশয় জয় করেছে কিউইরা।

    মার্টিন গাপটিল এবং হেনরি নিকোলস ভারতের দেয়া ৩৪৮ রানের লক্ষ্যে কিউইদের দারুণ শুরু এনে দিয়েছেন। প্রথম উইকেট জুটিতে ৭৮ রানের শক্ত ভিত গড়ে দিয়েছেন দুজন।  ৩২ রান করে শারদুল ঠাকুরের বলে ক্যাচ দিয়ে গাপটিল ফিরে গেলেও এক প্রান্ত আগলে রেখে খেলছিলেন হেনরি নিকোলস। ২৯ তম ওভারে রান আউট হয়ে যাওয়ার আগে দলীয় সংগ্রহে ৭৮ রান যোগ করে গেছেন তিনি। আর এই ভিতের উপর দাড়িয়েই রস টেলর পঞ্চম উইকেটে অধিনায়ক টম লাথামের সঙ্গে মিলে ১৩৮ রানের জুটি গড়ে দলকে লক্ষ্যে পৌঁছে দিয়েছেন। ৮৪ বলে ১০৯ রানের ম্যাচসেরা ইনিংস খেলার পথে ১০ টি চার এবং ৪ টি ছয় মেরেছেন টেলর। আর ভারতের চার নম্বরে নামা শ্রেয়াস আইয়ারও সেঞ্চুরির দেখা পাওয়ায় তার সাথে যৌথভাবে আরেকটি অন্যরকম অর্জনের অংশীদার হয়েছেন টেলর। ওয়ানডে ক্রিকেট ইতিহাসে একই ম্যাচে চার নম্বরে ব্যাট করা দুই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরির মাত্র তৃতীয় ঘটনা এটি।

    ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠান কিউই অধিনায়ক লাথাম। ওপেনিং জুটিতে পৃথ্বী শ এবং মায়াংক আগারওয়াল ৫০ রান সংগ্রহ করেছেন। কিন্তু দুই ওপেনার মাত্র ৪ রানের ব্যবধানে ফিরে গেলে কিছুটা চাপে পড়ে ভারত। কিন্তু তৃতীয় উইকেট জুটিতে অধিনায়ক কোহলির সঙ্গে আইয়ারের ১০২ রানের জুটি দিয়ে শুরুর সেই চাপ তুড়িতে উড়িয়ে দেয় ভারত। ৫১ রানে ইশ সোধির বলে যখন প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন কোহলি, কিউইদের সামনে বড় লক্ষ্য দেওয়ার জন্য ভারতের তখনো প্রয়োজন বেশ কিছু রান। পঞ্চম উইকেট জুটিতে শ্রেয়াস ও রাহুলের ১৩৬ রান এবং ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে রাহুল এবং কেদার যাদবের ঝড়ো ৫৫ রানের জুটিতে ভর করে কিউইদের সামনে ৩৪৮ রানের লক্ষ্য দাঁড় করায় ভারত।  কিন্তু ভারতের বিপক্ষে রান তাড়ার রেকর্ড গড়ে সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেছেন লাথাম-টেলররা।