• বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর
  • " />

     

    অ্যালেক্স হেলসের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ, 'সেলফ-আইসোলেশন'-এ

    কভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেওয়ায় নিজেকে ‘সেলফ-আইসোলেশন’-এর ভেতর রেখেছেন ইংল্যান্ড ওপেনার অ্যালেক্স হেলস। এর আগে ‘একজন বিদেশী ক্রিকেটারের মাঝে উপসর্গ’ দেখা দেওয়ার পর স্থগিত করা হয়েছে পাকিস্তান সুপার লিগ, পিএসএলের সেমিফাইনাল-ফাইনাল। আগেই পাকিস্তান ত্যাগ করা হেলস এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছেন, উপসর্গ থাকলেও এখনও পরীক্ষা করা সম্ভব হয়নি তার। আপাতত সরকারের নির্দেশনা মেনে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে রেখেছেন তিনি। 

    বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর অন্যান্য স্পোর্টিং ইভেন্টের মতো কার্যত বন্ধ হয়ে ছিল ক্রিকেটও। স্বীকৃত পর্যায়ে দর্শকশূন্য অবস্থায় চলছিল শুধু পিএসএলই, যেটির সূচি ও ফরম্যাটে আনা হয়েছিল পরিবর্তন। তবে একজন কোচসহ দশজন বিদেশী ক্রিকেটার ‘ভ্রমণে স্থগিতাদেশ’-এর কথা ভেবে পাকিস্তান ত্যাগ করেছিলেন আগেই, হেলস ছিলেন তাদেরই একজন। শেষ পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে এ টুর্নামেন্ট।  

    “ক্রিকেট বিশ্ব ও সোশ্যাল মিডিয়ায় যে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে, তার ভিত্তিতে আমি নিজের অবস্থানের একটা পুরো ব্যাখ্যা দিতে চাই”, টুইটার ও ইন্সটাগ্রামে তার ব্যক্তিগত ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের মাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলেছেন হেলস। 

    “অন্যান্য বিদেশী ক্রিকেটারের মতো আমিও স্বেচ্ছায় পাকিস্তান সুপার লিগ ত্যাগ করেছিলাম আগেই, কারণ, কভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারিতে রূপ নিচ্ছিল। ঘর ছেড়ে হাজার মেইল দূরে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকার চেয়ে আমি আমার পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে করেছিলাম। 

    “শনিবার সকালে দেশে ফেরার পরও আমি সুস্থ ছিলাম পুরোপুরি, কোনও উপসর্গ ছিল না ভাইরাসের। তবে রবিবার সকাল থেকে জ্বর এসেছে, এবং সরকারের উপদেশ মেনে আমি ‘সেলফ-আইসোলেশন’-এ আছি, এ প্রক্রিয়া অনুসরণ করার পরই শুষ্ক কাশি শুরু হয়েছে আমার।

    “এ পর্যায়ে সম্ভব না হলেও দিনের শেষভাগে (মঙ্গলবার) আমি পরীক্ষা করাতে পারব, এবং আমার স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা সম্বন্ধে নিশ্চিত হতে পারব।” 

    এর আগে সোমবারই নিজের ‘সেলফ-আইসোলেশন’-এর কথা জানিয়ে টিভি সিরিজের সাজেশন চেয়ে টুইট করেছিলেন হেলস, তবে পরে ডিলিট করে দিয়েছিলেন সেটি। 

    এর আগে ধারাভাষ্যকার ও সাবেক পাকিস্তান অধিনায়ক রমিজ রাজা সাংবাদিকদের বলেছিলেন, হেলসের মাঝে উপসর্গ দেখা দিয়েছে, তাদেরও পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে। শনিবার সারে সতীর্থ টম কারানের সঙ্গে সময় কাটিয়েছিলেন হেলস- এমন রিপোর্ট করেছে দ্য গার্ডিয়ান। তবে ‘সেলফ-আইসোলেশন’-এ থাকা ছয়জন সারে ক্রিকেটারের মাঝে কারান নেই। 

    পিএসএলের সেমিফাইনালে ওঠা চার দলের সব ক্রিকেটারসহ স্টাফ, এবং ব্রডকাস্টিংয়ের দায়িত্বে থাকা সবার নভেল করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করানো হবে। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন