• ইংল্যান্ডের শ্রীলঙ্কা সফর ২০২০
  • " />

     

    ৫ লাখ পাউন্ড দান করছেন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ইংল্যান্ড ক্রিকেটাররা

    ইসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটাররা প্রায় ৫ লাখ পাউন্ড দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইসিবি ও বিভিন্ন উদ্যোগে ব্যবহার করা হবে তা। এছাড়া মেয়ে ক্রিকেটাররা তাদের তিন মাসের বেতনের একটা অংশ দেবেন। কভিড-১৯ মহামারি মোকাবেলায় এগিয়ে এলেন তারা। 

    ইংল্যান্ডের ঘরোয়া মৌসুম অনিশ্চিত হয়ে যাওয়ার পর ইসিবি প্রায় ৬১ মিলিয়ন পাউন্ডের সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেছিল ক্রিকেটের জন্য। তবে ক্রিকেটারদের বেতন কমানোর বিষয়টি মানতে রাজি হয়নি তাদের সংস্থা পিসিএ, এমন জানিয়েছিল ক্রিকইনফো। তাদের বেতনের ২০ শতাংশ স্বেচ্ছায় দান করার কথা বলেছিল ইসিবি। এবার ইসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটাররা নিজেরাই এগিয়ে এলেন। ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক অইন মরগান এমন উদ্যোগের মাঝে আছেন। 

    “ইংল্যান্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা সব ক্রিকেটারের মিটিংয়ের পর তারা ইসিবি এবং নির্দিষ্ট কিছু উদ্যোগে প্রাথমিকভাবে ০.৫ মিলিয়ন পাউন্ড দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরের সপ্তাহগুলিতে সুনির্দিষ্ট পরিমাণ ক্রিকেটাররা ঠিক করবেন”, এক বার্তায় বলেছেন তারা। 

    তাদের দান করা এই অর্থের এই পরিমাণ কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটারদের পরবর্তী ৩ মাসের বেতনের ২০ শতাংশ। 

    “এই খেলা এবং পুরো সমাজ যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি, এ নিয়ে ইসিবির সঙ্গে ক্রিকেটারদের আলোচনা চলতে থাকবে। ইসিবি এবং ক্রিকেটসহ পুরো সম্প্রদায়কে সহায়তা করার চেষ্টা করবে।” 

    মেয়ে ক্রিকেটারদের হয়ে তাদের অধিনায়ক হেদার নাইট বলেছেন, সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে বেতনের একটা অংশ কম নেওয়ার ব্যাপারটি তাদের কাছে ‘সঠিক সিদ্ধান্ত’ বলে মনে হয়েছে। 

    এর আগে ইংল্যান্ড ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত উদ্যোগে কভিড-১৯ মোকাবেলায় এগিয়ে এসেছেন। জস বাটলার তার বিশ্বকাপের ফাইনালের জার্সি নিলামে তুলেছেন, স্যাম কারান এনএইচএসের জন্য তহবিল সংগ্রহ করছেন, নাইট এনএইচএসের ভলান্টিয়ার হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। 
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন