• বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    পল স্মলিকেই ফেরত আনছে বাফুফে

    পল স্মলিংকে আবার ফেরত আনছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। গত বছর অক্টোবরে স্মলির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ ফুরিয়ে গিয়েছিল, তিনিও ফিরে গিয়েছিলেন। এর ৬ মাস পর আবার তাকেই টেকনিক্যাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি ডিরেক্টরে হিসেবে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাফুফে।

    এর আগে ২০১৬ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত একই পদে কাজ করেছেন স্মলি। বাফুফের সঙ্গে তার নতুন চুক্তির মেয়াদ হতে যাচ্ছে দুই বছরের জন্য। বাফুফের টেকনিক্যাল কমিটির সুপারিশের পর এখন আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্তের জন্য  অবশ্য অপেক্ষা করতে হবে স্মলিংকে।

    "ফিফার নিয়ম অনুযায়ী একজন টেকনিক্যাল ও স্ট্রাটেজিক্যাল ডিরেক্টর অবশ্য থাকতে হবে। যেহেতু তার আগে এখানে কাজ করার অভিজ্ঞতা আছে তাই আমরা পল স্মলির নাম সুপারিশ করেছি। আগের মেয়াদে সে তৃণমূল ফুটবল, মেয়েদের ফুটবল, বয়সভিত্তিক দল ও ফিফার সিএসআর নিয়ে বেশ কিছু কাজ করেছে। আমরা তখন কিছু সাফল্যও পেয়েছি। তাই এবারও তাকেই আমাদের কাছে যোগ্য প্রার্থী মনে হয়েছে।" -টেকনিক্যাল  কমিটির বৈঠক শেষে জানিয়েছেন বাফুফের ভাইস প্রেসিডেন্ট তাবিথ আউয়াল।

    স্মলির নিয়োগ ছাড়াও আরও বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রবিবারের অনলাইন বৈঠকে। সারা দেশের ১২০টি ফুটবল একাডেমিকে নিজেদের আওতায় আনতে চায় বাফুফে। তাবিথ আউয়াল বলছেন এর মাধ্যমে সারা দেশের ফুটবল একাডেমিগুলোকে উৎসাহ দেওয়ার সঙ্গে ভবিষ্যতে কাজ করার ব্যাপারে ক্ষেত্র প্রস্তুত হবে। একাডেমিগুলোকে ওয়ান, টু ও থ্রি স্টারে ভাগ করে ভবিষ্যতে তাদের সহযোগিতার ব্যবস্থাও করতে চায় বাফুফে।
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন