• ফুটবল, অন্যান্য
  • " />

     

    সংখ্যায় সংখ্যায় : রোনালদোর গোলের রেকর্ড, মেসির অ্যাসিস্টের আর বুফনের ম্যাচের

    গেল সপ্তাহে ইউরোপিয়ান ফুটবলে রেকর্ড গড়া হয়েছে অনেক। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসিরাই আলো কেড়েছেন বেশি। তবে জিয়ানলুইজি বুফন ছুঁয়েছেন অনন্য এক এক রেকর্ড।

    ২৫+
    তোরিনোর বিপক্ষে গোল করে সিরি আতে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গোল এখন পর্যন্ত ২৬। জুভেন্টাসের জার্সিতে গত ৬০ বছরের ভেতর লিগে ২৫+ গোল করা মাত্র দ্বিতীয় ফুটবলার এখন রোনালদো। ১৯৬০-৬১ মৌসুমে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তী ওমর সিভোরে করেছিলেন ২৫ গোল। পরের মৌসুমেই আবার ২৭ গোল করেছিলেন তিনি লিগে। রোনালদো সিভোরিকে ছাড়িয়ে যাওয়ার পথেই আছেন।  

    ১৯
    লা লিগার ইতিহাসে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ অ্যাসিস্টের রেকর্ডটা নতুন করে লিখেছেন লিওনলে মেসি। ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে দুইটি অ্যাসিস্ট করে এখন পর্যন্ত তার অ্যাসিস্ট সংখ্যা ১৯।

    ৬৪৮
    সিরি আর সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেল ফুটবলার এখন জিয়ানলুইজি বুফন। তোরিনোর বিপক্ষে মাঠে নেমে পাওলো মালদিনির ৬৪৭ ম্যাচের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছেন তিনি।

    ১০০
    কার্টিস জনসনের গোলে অ্যাসিস্ট করে প্রিমিয়ার লিগের ১১৬ তম ম্যাচে গোল গোল ইনিভলভমেন্টের সেঞ্চুরি পূরণ হয়েছে মোহামেদ সালাহর।  গোল ৭৩ ও অ্যাসিস্ট ২৭।


    ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো টানা ৩ অ্যাওয়ে ম্যাচে হেরেছেন পেপ গার্দিওলা। সাউদাম্পটনের বিপক্ষে হার এবারের লিগে সিটির নবম। ম্যানেজেরিয়াল ক্যারিয়ারে এক মৌসুমে লিগে এতোগুলো ম্যাচ কখনই হারেননি গার্দিওলা।   


    ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ৯ ম্যাচ পর প্রথম গোলের দেখা পেয়েছেন অ্যান্টোয়ান গ্রিযমান।

    ১০
    আরও একবার পেনাল্টি থেকে গোল করেছেন সার্জিও রামোস।  সবশেষ ২২ স্পট কিকেই সফল হয়েছেন তিনি। আর এই মৌসুমে লিগে তার গোল দাঁড়িয়েছে ১০টি। ডিফেন্ডার হিসেবে লা লিগায় এক মৌসুমে দুই অঙ্কের গোলসংখ্যা পৌঁছাতে পেরেছিলেন সবশেষ ফার্নান্দো হিয়েরো (১৯৯৩-৯৪ মৌসুমে)।  

    ২-০
    পয়েন্ট টেবিলের অবস্থানে নিজেদের ওপরে থাকা দলের বিপক্ষে তাদের মাঠে গিয়ে আর্সেনাল সবশেষ হারিয়েছিল ২০১৫ সালে। লেস্টার সিটিকে সেবার ৫-২ গোলে হারিয়েছিল আর্সেনাল। প্রায় ৫ বছর পর দ্বিতীয়বারের মতো ঘটেছে সেই ঘটনা। উলভসকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আর্সেনাল

    ১৬
    সিরি আ-তে সবশেষ ১৬ ম্যাচের প্রত্যেকটিতেই অন্তত গোল বা অ্যাসিস্ট আছে রোনালদোর। এই সময়ে  রোনালদোর গোল ২০টি, আর অ্যাসিস্ট আছে ৪টি।

    ৪৩
    জুভেন্টাসের জার্সিতে ৪৩ তম চেষ্টায় ফ্রি-কিক থেকে গোল পেয়েছেন রোনালদো।


    প্রিমিয়ার লিগে এখন পর্যন্ত ৮ গোল করেছেন মেসন গ্রিনউড। ১৮ বছর বা তার চেয়ে কমও বয়সে মাত্র ৩ জন ফুটবলার গ্রিনউডের চেয়ে বেশি গোল করেছিলেন। লিভারপুলের হয়ে মাইকেল ওয়েন ও রবি ফাউলার, আর এভারটনের হয়ে ওয়েইন রুনি।


    ২০১১ সালের পর প্রথমবারের মতো ওল্ড ট্রাফোর্ডে এক ম্যাচে ৫ গোল করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ওল্ড ট্রাফোর্ডে ৫ এর বেশি গোল সবশেষ ইউনাইটেড করেছিল আর্সেনালের বিপক্ষে, ৮-২ গোলে জেতা ম্যাচে।
     
    ১০
    ব্রুনো ফার্নান্দেজ লিগে ৯ ম্যাচে খেলে করেছেন ৫ গোল ও ৫ অ্যাসিস্ট। ৯ ম্যাচের হিসেবে গোল ইনভলভমেন্টের দিক দিয়ে ফার্নান্দেজ আছেন এরিক ক্যান্টোনা ও রবিন ফন পার্সির সঙ্গে।


    এক বিংশ শতাব্দীতে জন্ম নেওয়া প্রথম ফুটবলার হিসেবে সিরি আ-তে গোল করেছেন বোলোনিয়ার মুসা জুয়ারা। ইন্টার মিলানের বিপক্ষে সমতাসূচক গোলটি করেছিলেন তিনি। পরে মুসা বারো গোল করে সান সিরোতে জয় নিশ্চিত করেছেন বোলোনিয়ার।

    ২০
    ইন্টার মিলানের হয়ে প্রথম মৌসুমে লিগে অন্তত ২০ গোল করা মাত্র চতুর্থ ফুটবলার রোমালু লুকাকু। বোলোনিয়ার বিপক্ষে ২০ গোলের মাইলফলক ছুঁয়েছেন তিনি। বাকি তিন জন- জিউসেপ্পে মেয়াৎজা, স্টেফানো নিরেস ও রোনালদো নাজারিও। 

    বেয়ার লেভারকুসেনকে হারিয়ে ২০তম জার্মান কাপের শিরোপা জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখ।


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন