• ক্রিকেটে ফেরা
  • " />

     

    বাংলাদেশে ফিরে অনুশীলন শুরু করার অপেক্ষায় সাকিব

    নিষেধাজ্ঞা শেষের পর ক্রিকেটে ফেরার লক্ষ্যে প্রস্তুতি শুরু করতে দেশে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। কোভিড-১৯ মহামারিতে লকডাউনের সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের সঙ্গে ছিলেন তিনি। বুধবার ভোররাতে ঢাকা পৌঁছে নিজ বাসায় কোয়ারেন্টাইনে আছেন সাকিব, কোভিড-১৯ এর ফল নেগেটিভ এলে বিকেএসপিতে ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু করবেন তিনি, জানিয়েছে একাধিক জাতীয় পত্রিকা। 

    আইসিসি থেকে দেওয়া সাকিবের ওপর নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে ২৯ অক্টোবর। সে সময় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ, যার প্রথমটি শুরু হওয়ার কথা ২৪ অক্টোবর। ফলে ২য় টেস্ট থেকেই দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন তিনি, যদি তাকে নির্বাচন করা হয়। 

    তবে সাকিবের ক্ষেত্রে ফেরার পথটা খুব একটা জটিল হচ্ছে না, অন্তত বিসিবি ইঙ্গিত দিয়েছে তেমনই। বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘তার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা’ করছেন তারা, “তার সাথে কী কথা হল আমি সেটা বলবোনা। আমি শুধু এটা বলবো, যেদিন ওর নিষেধাজ্ঞাটা উঠে যাবে তারপরই সে আমাদের সাথে খেলতে পারবে। তখন থেকেই তাকে খেলানোর জন্য বিবেচনা করা হবে, এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। আমরা সবাই অধীর আগ্রহে বসে আছি কবে ফিরবে।”

    এ মাসের মাঝামাঝির দিকে পাপন আরও বলেছিলেন, “কিন্তু এসবের সাথে ওর ফিটনেস, প্রস্তুতিরও একটা ব্যাপার আছে। এ জন্য ও ওর মত যেভাবে অনুশীলন করা দরকার... এখনতো সে আমাদের সাথে করতে পারছেনা। এখন নিষেধাজ্ঞার কারণে আমাদের সাথে করতে পারবেনা। এ কারণে সে বিকল্প চিন্তা ভাবনা করেছে। আমার সাথে কথা বলেছে। শেষ যখন কথা হল তখন বলেছে এ মাসের শেষ দিকে চলে আসবে। আর আশা করছি ও ফিট থাকবে, সবই থাকবে এবং আমাদের সাথে শ্রীলঙ্কায় সে জয়েন করতে পারবে।” 

    সাকিবের বিকেএসপিতে অনুশীলন করার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরি, “আপনারা এরই মাঝে হয়তো জেনেছেন সাকিব- উনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুশীলনটা করবেন। সেক্ষেত্রে উনি বিকেএসপিকে বেছে নিয়েছেন।” আমি যতটুকু জানি আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে উনি বাংলাদেশে আসবেন এবং ট্রেনিং শুরু করবেন।

    এ মাসের তৃতীয় সপ্তাহের দিকে জাতীয় দলের পুলে থাকা ক্রিকেটারদের কোভিড-১৯ টেস্টের পর কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরুর কথা রয়েছে। তবে অনুশীলনের বেশিরভাগটা শ্রীলঙ্কা গিয়েই সারতে চায় বিসিবি। আর সাকিবের ক্ষেত্রে, যেহেতু নিষেধাজ্ঞা শেষের আগে দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারবেন না তিনি, সেহেতু তাকে আগেই পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে শ্রীলঙ্কায়। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন