• রিও ২০১৬
  • " />

     

    ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য পদক নিলামে!

    রূপো জেতা হয়ে গিয়েছিল আট বছর আগেই। পিওটর মালাচভস্কি এবার রিওতে পা রেখেছিলেন স্বর্ণ জয়ের প্রত্যাশায়। শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী রবার্ট হার্টিং হিটেই বাদ পড়ে যাওয়ায় স্বর্ণে একরকম হাত দিয়েই রেখেছিলেন পোলিশ ডিসকাস থ্রোয়ার। কিন্তু হার্টিংয়ের ছোট ভাইয়ের কাছে অপ্রত্যাশিতভাবে হেরে গিয়ে আরও একবার রূপা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় মালাচভস্কিকে। তবে সেই রূপাকেই সোনার চেয়েও দামী করে তুলতে যাচ্ছেন এই বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। ক্যান্সার আক্রান্ত এক শিশুর চিকিৎসার তহবিল গঠনের উদ্দেশ্যে সদ্য জেতা রৌপ্য পদকটা নিলামে তুলেছেন ৩৩ বছর বয়সী পোলিশম্যান।
     
     

     

    ব্যক্তিগত ফেসবুক পাতায় তাঁর পদকটির জন্য ক্রেতা চেয়ে এই অ্যাথলেট জানান, ওলেক নামের তিন বছরের এক শিশুর মায়ের চিঠি পেয়ে পদক বিক্রির এই উদ্যোগ। শিশুটি বিরল চোখের ক্যান্সারে ভুগছে। মালাচভস্কি জানান, ওলেককে উন্নত চিকিৎসার জন্য নিউইয়র্ক পাঠানো প্রয়োজন এবং সে বাবদ প্রয়োজনীয় অর্থ যোগান দেয়ার সামর্থ্য শিশুটির মায়ের নেই।

     

    এমন প্রেক্ষিতে নিজের পদক বিক্রি করে সে টাকা ওলেকের চিকিৎসার জন্য দান করবেন বলে জানান তিনি, "আমি তো সোনার জন্য রিওতে লড়েছিলাম, আমি আপনাদের সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি আরও দামী কিছুর জন্য লড়তে। আপনাদের সাহায্য পেলে আমার এই রূপার পদকটা ওলেকের জন্য সোনার চেয়েও দামী হয়ে উঠতে পারে।"

     

    কিছুক্ষণ পরই আরেকটা পোস্ট দিয়ে মালাচভস্কি জানান, পদকের জন্য আগ্রহী ক্রেতাও পেয়ে গেছেন তিনি।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন