• ভারত-নিউজিল্যান্ড
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    কেন বেরিয়ে গিয়েছিলেন স্টাইরিস?

    ভারতীয় দলে অভিষেকটা হয়েছিল মূলত ব্যাটসম্যান হিসেবেই, ঘরোয়া ক্রিকেটে করেন উইকেটকিপিংও। অথচ সেই কেদার যাদভ কিনা চলতি সিরিজে নিউজিল্যান্ডের জন্য অন্যতম মাথাব্যাথার নাম হয়ে উঠেছেন বোলার হিসেবে! শুধু কি তাই? ভারতীয় দলের এই ‘সারপ্রাইজ প্যাকেজ’ গত ম্যাচে ভাষ্যকার স্কট স্টাইরিসকে বাধ্য করেছেন ধারাভাষ্য কক্ষ ছেড়ে বেরিয়ে যেতে!

     

     

    আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বল হাতে সাফল্য পাওয়ার আগে যাদভের নামের পাশে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে উইকেট ছিল মাত্র ১টি! লিস্ট ‘এ’ আর টি-টোয়েন্টিসহ আড়াইশ ম্যাচ খেলে পাওয়া ১২ উইকেট বলে দেয় বলটা কালেভদ্রেই হাতে নেন এই অফ স্পিনার। তবে এই ‘কালেভদ্রে’র বোলারই কিউইদের জন্য বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। সিরিজের প্রথম দু’ ম্যাচ থেকে নিয়েছিলেন ৩ উইকেট, আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারেও উইকেট ছিল এ ক’টাই।

     

    গতকাল তৃতীয় ম্যাচে যখন উইলিয়ামসন-ল্যথামরা উমেশ যাদব-হার্ডিক পান্ডিয়াদের স্বচ্ছন্দে খেলছিলেন, কেদারকে আক্রমণে নিয়ে আসেন ধোনি। তবে প্রথম দু’ ম্যাচে কেদারের সাফল্যটুকু হয়তো ‘ফ্লুক’ বলেই ভেবেছিলেন ওই সময় ধারাভাষ্যে থাকা সাবেক কিউই ক্রিকেটার স্কট স্টাইরিস। আর তাই মাইক্রোফোন হাতেই ঘোষণা দিয়ে বসেন, এই ম্যাচে কেদার যাদভ ১টি উইকেটও পেলে তিনি ধারাভাষ্য কক্ষ ছেড়ে বেড়িয়ে সোজা বিমানবন্দরে গিয়ে দেশের ফ্লাইট ধরবেন।

     

    স্টাইরিসের জবান বন্ধ করে দিয়ে নিজের দ্বিতীয় ওভারেই কিউই অধিনায়ক উইলিয়ামসনকে এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলে ফিরিয়ে দেন কেদার যাদভ। তারপর? না, কোনো ভণিতার আশ্রয় না নিয়ে সত্যি সত্যিই কমেন্ট্রি বক্স ছেড়ে বেরিয়ে যান স্টাইরিস! তবে দেশের বিমান ধরেছেন কিনা সেটা এখনও জানা যায় নি!

     

     

     

    পরবর্তীতে টুইটারে এ নিয়ে এক ভারতীয় সমর্থক টিপ্পনি কেটে স্টাইরিসের কাছে জানতে চান এখন কোথায় আছেন? স্টাইরিসও মজা করেই জবাব দেন, “লুকিয়ে আছি!”

     

    যাদব এই ম্যাচে এরপর নিয়েছেন আরও দু’ উইকেট। সিরিজের শেষ দু’ ম্যাচের আগে তাই তাঁকে নিয়ে ভালো গবেষণাই করতে হবে সফরকারীদের।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন