• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত
  • " />

     

    'দায়িত্বটা অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে'

    কে হবেন ভারতের নতুন কোচ, গত কয়েকদিন ধরেই এই প্রশ্নের অনেকগুলো সম্ভাব্য উত্তর শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত অনেক জলঘোলা করার পর কোচের দায়িত্বটা তাঁর কাঁধেই গেছে। দ্বিতীয়বারের মতো ভারতের কোচ হওয়া রবি শাস্ত্রী বলছেন, এই দায়িত্বটা অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে।

     

    গত বছরের মাঝামাঝি সময় কোচের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন। এক বছর পর আবারো সেই জায়গায় ফিরেছেন শাস্ত্রী। তাঁর মতে, দলে খুব একটা পরিবর্তন না আসায় তাঁর কাজ অনেকটাই সহজ হয়ে গেছে, “আমি যেখানে রেখেছিলাম দলকে, সেখান থেকেই শুরু করতে হবে। অপ্রয়োজনীয় কিছু আমি সামনের দিনগুলোতে বয়ে নিতে চাই না। আমার দায়িত্ব ছাড়ার সময় দলের মূল ক্রিকেটার ও সহযোগী কর্মকর্তারা যেমন ছিল, এখনও তেমনটাই আছে। প্রথমবার আমি খুব বেশি কিছু জানতাম না কোচিংয়ের ব্যাপারে। কিন্তু এবার সবকিছুই অনেক চেনা। ছয়-আট মাস তাঁদের সাথে আর অনুশীলনের সময় সবকিছু বুঝে নেওয়ার প্রয়োজন নেই। প্রথম দিন থেকেই কাজে নেমে পড়ব। তাই কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকব। ”

    কুম্বলের পদত্যাগের অন্যতম প্রধান কারণ ছিল অধিনায়ক কোহলির সাথে দ্বন্দ্ব। শাস্ত্রী বলছেন, দলের মূল সিদ্ধান্তগুলো অধিনায়কের হাতেই থাকা উচিত, “দলটা অধিনায়কের, সেই নেতৃত্ব দিচ্ছে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটা তাঁরই হওয়া উচিত। কোচের দায়িত্ব হচ্ছে বলা, পথ দেখিয়ে দেওয়া। কোচ এবং স্টাফের দায়িত্ব পেছনে থেকে ক্রিকেটারদের সাহায্য করা। এটাই আমি বিশ্বাস করি, এরকমটাই  হবে ভবিষ্যতে।”

     

    অনেক নাটকের পর কোচ হয়েছেন। ১৯ জুলাই থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব বুঝে নেবেন। শাস্ত্রী বলছেন, এসব ব্যাপার নিয়ে তিনি কখনোই মাথা ঘামাননি, “আমি ভাগ্যে বিশ্বাসী। আমি জানি যা ভাগ্যে আছে সেটা হবেই। কোচ হওয়া নিয়ে অনেক কথাই শোনা গেছে এক মাসে। ওসব আমি মাথায় আনতে চাই না। সামনে কী করব সেটা নিয়েই ভাবছি আমি। সবাইকে সাথে নিয়েই এগোতে চাই।”

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন