• " />

     

    রেফারির উদ্ভট সিদ্ধান্তে লাল কার্ড দেখলেন কাকা!

    রেফারির ভুল সিদ্ধান্তে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছেন অনেকেই। তা নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। আবার অনেক সময় ফাউল করেও, রেফারির চোখ এড়িয়ে গেছেন কত-শত ফুটবলার! ফুটবলের হরহামেশা ঘটনাই এগুলো। এসব থেকে রেহাই পেতেই ফুটবলে ভিডিও রিপ্লে সংযোজন হয়েছে কয়েকদিন আগে। কিন্তু গতকাল মেজর লিগ সকারে যা ঘটল তা প্রশ্নের সামনে দাঁড় করিয়ে দিচ্ছে ভিডিও রিপ্লেকেও!

    গতকাল মেজর লিগ সকারের ম্যাচে অদ্ভুত এক লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছেন কাকা। অরল্যান্ডো সিটি এফসি ও নিউইয়র্ক বুলসের খেলায় যোগ করায় সময়ে পিছিয়ে ছিল কাকার দল। সমতা আনতে আরও দুই গোলের প্রয়োজন তখনও অরল্যান্ডো এফসির। যোগ করা সময়ে তাই অনুমিতই ছিল খেলার ফল। দুই দলের খেলোয়াড়রাও হয়ত মেনেই নিয়েছিলেন সেটা, তাদের শরীরী ভাষা অন্তত তেমনটাই জানান দেয়।

    অরল্যান্ডোর ক্রিশ্চিয়ান হিগুইতা আর নিউইয়র্কের সিন ডেভিসের এসময় বল কাড়াকাড়ি নিয়ে সামান্য বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন। দুই খেলোয়াড়কে থামাতে যোগ দেন তাদের দলের বাকিরাও। টাচলাইনের বাইরে লাইনসম্যানও চেষ্টা করছিলেন পুনরায় খেলা শুরুর পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে। দৌড়ে আসেন রেফারি হোর্হে গঞ্জালেজ। সহকারীদের সাথে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত নেন ভিডিও রিপ্লের সহায়তা নেবেন তিনি।






    দুই দলের খেলোয়াড়রা যখন একে অন্যকে  থামাতে ব্যস্ত, সেখানে ছিলেন অরল্যান্ডো সিটির অধিয়ানক কাকাও। ৯৩ মিনিটে তখন গা ছাড়া ভাবটা ভর করেছিল সবার মাঝেই। মজা করেই তিনি পেছন থেকে প্রতিপক্ষের অরেলিন কলিনের মুখে হাত দেন। ডিফেন্ডার কলিন গতবছর নিউইয়র্ক রেড বুলে যোগ দেয়ার আগে ছিলেন কাকার দলেই। তিনিও পেছন ফিরে তাকিয়ে হাসির ছলেই জবাব দেন কাকাকে। এরপর আরও একবার একইরকম ভাবে দুইজন মেতে ওঠেন ছেলেমানুষীতে।

    ভিডিও রিপ্লে দেখার সময় এই দৃশ্য চোখে পড়ে রেফারির। মাঠের পাশে রাখা টিভিতে রিপ্লে দেখার পর ফিরে এসে তিনি হলুদ কার্ড দেখান হিগুইতা ও ডেভিসকে। এরপর জন্ম দেন বিতর্কিত মুহুর্তের। পেছন পকেট থেকে লাল কার্ড বের করে কাকাকে দেখিয়ে মাঠ ছাড়ার নির্দেশ দেন রেফারি গঞ্জালেজ!

    এমন উদ্ভট কান্ডে কাকা তো বটেই, কলিন নিজেও অবাক হয়ে যান। নিজের চোখ হয়ত বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না কাকা। রেফারির সামনে গিয়ে কলিন নিজেও কিছু একটা বলে বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তাতে তো আর দেখিয়ে ফেলা লাল কার্ড ফিরিয়ে নেয়া যায় না! তাই ৯৭ মিনিটে বিস্ময় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় কাকাকে।   

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন