• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ড সিরিজ
  • " />

     

    বাছাইপর্ব খেলেই বিশ্বকাপে যেতে হবে গেইলদের

    সরাসরি বিশ্বকাপে যাওয়ার রাস্তাটা কঠিন হলেও ‘অসম্ভব’ ছিল না। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫-০ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেই শ্রীলংকাকে টপকে র‍্যাংকিংয়ের অষ্টম স্থানে উঠে যেত ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিশ্চিত হতো ২০১৯ বিশ্বকাপে সরাসরি অংশগ্রহণও। তবে গতকাল প্রথম ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের কাছে পরাজয়ের পর বাছাইপর্ব খেলেই বিশ্বকাপে যেতে হবে গেইলদের।

    ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে র‍্যাংকিংয়ের অষ্টম স্থানে ছিল শ্রীলংকা, ৭৮ পয়েন্ট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছিল নবম স্থানে। ৩০ সেপ্টেম্বরের পর প্রথম ৮ দলই সরাসরি খেলার সুযোগ পাবে পরবর্তী বিশ্বকাপে। শ্রীলংকাকে সরিয়ে অষ্টম স্থানে ওঠার জন্য ইংলিশদের ধবলধোলাইয়ের কোনো বিকল্প ছিল না হোল্ডারদের সামনে। তবে জনি বেইরস্টোর দারুন এক সেঞ্চুরিতে সেই আশা শুরুতেই ভেস্তে গেছে। পরের চার ম্যাচ জিতলেও আর সরাসরি বিশ্বকাপে যেতে পারবে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

    আয়ারল্যান্ড, আফগানিস্তান, জিম্বাবুয়ের সাথে বাছাইপর্ব খেলেই বিশ্বকাপে যেতে হবে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং কোচ টবি র‍্যাডফোর্ড বলছেন, বাছাইপর্বে সবকিছু উজার করেই নামবে তার দল, “আমরা জানতাম কাজটা কঠিন হবে। আমরা যা যা করার সবই করেছি। দলকে আরও গোছাতে হবে। বাছাইপর্বের জন্য এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে। আশা করি ভালোভাবেই উতরে যাবো।”

    এদিকে ক্যারিবিয়দের পরাজয়ে বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত হয়ে গেছে শ্রীলংকার। বাছাইপর্ব এড়াতে পেরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন লংকান অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা, “আমাদের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। কিছুক্ষণ আগেই জানতে পারলাম সরাসরি বিশ্বকাপে খেলতে পারব। আইসিসি ইভেন্টে শ্রীলংকা বরাবরই দারুন পারফর্ম করেছে। এবারো এরকম কিছুই করার চেষ্টা করব। ভক্তদের ধন্যবাদ দিতে চাই, তারা আমাদের ওপর ভরসা রেখেছেন। বিশ্বকাপ নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা আছে, সেটা ধরেই কাজ করতে হবে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন