• জাতীয় লিগ ২০১৭
  • " />

     

    দেলোয়ার-তোপে ৭০ বলেই শেষ চট্টগ্রাম

    চট্টগ্রাম ২৬০ এবং ১৩০ (সাদিকুর ৪৮; দেলোয়ার ৬/২৩)

    রাজশাহী ৪০৩  (টিয়ার-২)

    ফলঃ রাজশাহী ইনিংস ও ১৩ রানে জয়ী


    কাজটা কঠিন ছিল। তবে অসম্ভব নয়ই। তৃতীয় দিন শেষেও ৩৪ রানে পিছিয়ে ছিল চট্টগ্রাম, হাতে ছিল আরও সাত উইকেট। চতুর্থ দিনের একটা বড় অংশ পার করে দিতে পারলে ড্র অন্তত করতে পারত। কিন্তু কীসের কী, আগের দিনের সঙ্গে আর মাত্র ২১ রান যোগ করতেই হারিয়ে ফেলল সাত উইকেট। টিয়ার টুতে রাজশাহীর কাছে হারতে হলো ইনিংস ও ১৩ রানে। সামনে থেকে সেইও ধ্বংসযজ্ঞের নেতৃত্ব দিয়েছেন দেলোয়ার হোসেন।

    বগুড়ায় প্রথম ইনিংসে ২৬০ রানে অলআউট হওয়ার পর চট্টগ্রামকে দ্বিতীয় ইনিংসে লম্বা সময় ধরে ব্যাট করতেই হতো। কিন্তু আগের দিনের সঙ্গে ১১ রান যোগ করেই হয়ে যায় অলআউট, তাও মাত্র ১১.৪ ওভারেই!

    সকালেই তাসামুল হককে বোল্ড করে প্রথম উইকেট তুলে নেন দেলোয়ার। এরপর দারুণ এক স্পেলে তুলে নিয়েছেন আরও পাঁচ উইকেট। পরে হাসান মাহমুদকে আউট করে শেষ উইকেট পেয়েছেন ফরহাদ রেজা। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে এ নিয়ে পঞ্চমবার ম্যাচে পাঁচ উইকেট পেলেন ৩২ বছর বয়সী এই পেসার, এটা তাঁর ক্যারিয়ার সেরা বোলিংও বটে। প্রথম ইনিংসে পেয়েছিলেন আরও তিন উইকেট, আবার করেছিলেন ৬২ রানও। ম্যাচসেরার পুরস্কারটা তাঁকে না দিয়ে উপায় ছিল না। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন