• ইউরোপা লিগ
  • " />

     

    ভক্তকে লাথি মেরে নিষিদ্ধ এভরা

     

    ইউরোপা লিগের ম্যাচের আগে অনুশীলন করছিলেন মার্শেই সতীর্থদের সাথে। সাইডলাইনের বাইরে দাঁড়ানো কিছু ভক্ত অনেকক্ষণ ধরেই ‘বিরক্ত’ করছিল প্যাট্রিক এভরাকে। শেষ পর্যন্ত ভেঙ্গে যায়  এভরার ধৈর্যের বাধ, অপ্রত্যাশিতভাবেই সজোরে লাথি মেরে বসে এক ভক্তকে। সাথে সাথেই লেগে যায় হাঙ্গামা, ম্যাচের আগেই লাল কার্ড দেখেন এভরা। এবার এই ঘটনায় কমপক্ষে এক ম্যাচের জন্য এভরাকে নিষিদ্ধ করেছে মার্শেই।

     

    গত বৃহস্পতিবার ভিটোরিয়া গুইমারেসের বিপক্ষে ম্যাচের আধ ঘণ্টা আগে অনুশীলনে নেমেছিলেন এভরাসহ অন্য ফুটবলাররা। স্টেডিয়ামে আসা মার্শেই ভক্তদের একাংশ নানাভাবে এভরা বিদ্রুপ করে স্লোগান ও গান গাইছিল। বেশ কয়েকবার তাঁদের সাথে কথা কাটাকাটি হয় এভরার। তবুও সেই বিদ্রুপ না থামলে এক ভক্তের মুখে লাথি মারেন তিনি। এই ঘটনায় ভক্তরাও খেপে ওঠে।

     

     

     

    বেশ কিছুক্ষণ মার্শেই ফুটবলার ও কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। ব্যাপারটা রেফারির নজর এড়ায়নি। বেঞ্চে বদলি ফুটবলার হিসেবে বসার কথা থাকলেও ম্যাচের আগে তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি, ফলে স্টেডিয়ামে বসেই খেলা দেখতে হয় এভরাকে। ম্যাচটাও ১-০ গোলে হেরেছে মার্শেই।

     

    মার্শেই কর্তৃপক্ষ বলছে, একজন অভিজ্ঞ ফুটবলার হিসেবে এভরার এরকম আচরণ একেবারেই অগ্রহণযোগ্য, “মার্শেই প্রেসিডেন্ট জ্যাক হেনরি এভরার সাথে দেখা করেছেন ম্যাচের পর। সেই সময় তাকে নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দেন তিনি। ক্লাব ও ইউয়েফা আলাদাভাবে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত করবে। কিছু ভক্তের অমন আচরণের জন্য তাঁর মতো অভিজ্ঞ ফুটবলারের এমনটা করা একেবারেই উচিত হয়নি। তাঁর এরকম আচরণ মার্শেইয়ের সম্মানহানি করেছে।”

     

    এখনও এই ব্যাপারে এভরার কোনো বক্তব্য জানা যায়নি। ২২ বছর আগে আরেক ফরাসি ফুটবলার এরিক ক্যান্টোনাও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে ঘটিয়েছিলেন একই কান্ড। ম্যাচ চলার সম্মত এক ভক্তকে লাথি মেরে সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি।

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন