• বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    ডট বলেও প্রেরণা পেয়েছেন থারাঙ্গারা

    আবু হায়দার রনি এসে শুরুতেই বলে গেলেন, উইকেটে ভালোই ছিল, এমন কোনো জুজু ছিল না। উপুল থারাঙ্গা আর আন্দ্রে ফ্লেচার যেভাবে ব্যাট করেছেন, তাতে তা বোঝা গেছে ভালোমতোই। তবে থারাঙ্গা জানিয়েছেন, লক্ষ্যটা খুব বড় না হলেও ঝুঁকির সম্ভাবনা তো ছিলই। নিজেদের স্বাভাবিক খেলা খেলেই নিশ্চিত করেছেন জয়।

    টসে জিতে শুরুতে বল করার সিদ্ধান্তের যথার্থতা দারুণভাবেই প্রমাণ করেছেন নাসির। ঢাকার ব্যাটসম্যানদের কম বেশি সবাই আউট হয়েছেন মারতে গিয়ে, রনিও বলছেন উইকেট খুব একটা কঠিন ছিল না, ‘অবশ্য উইকেট ভালো ছিল। আজকে আমাদের খারাপ দিন গেছে। আমাদের অনেক ভালো ব্যাটিং লাইন আপ। কিন্তু আমরা শুরুতেই উইকেট হারিয়েছি। মাঝে দুজন সেট ব্যাটসম্যান আউট হওয়াতে রানটা বড় হয়নি। ’

     

     

    থারাঙ্গা অবশ্য বললেন, তাঁরা শুধু মূল ব্যাপারটা ঠিকঠাক করার চেষ্টাই করেছেন, ‘ছোট রান তাড়া করা তো সবসময় কঠিন। ফ্লেচার আর আমি নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলেছি। ফ্লেচার যেভাবে বোলারদের তাড়া করেছে তাও আমাকে সাহায্য করেছে। আমি সিঙ্গল নিয়ে শুধু খারাপ বলগুলো কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছি।’

     

     

    থারাঙ্গা অবশ্য বোলারদের কৃতিত্ব দিলেন, ‘আমার মনে হয় আমাদের বোলাররাও ওদের ১৪০ এর নিচে আটকে রাখতে পেরে খুব ভালো করেছে। বিশেষ করে মাঠের আকার অনুযায়ী।’ দর্শকদের কথাও মনে করিয়ে দিতে ভুললেন না, ‘প্রথম বল থেকেই দর্শকদের সমর্থন পেয়েছি। এমনকি ডট বলেও ওরা গলা ফাটিয়েছি। এটা আমাদের জন্য ভালো একটা প্রেরণা ছিল। আর জয়টা ছিল দলীয় চেষ্টার ফল। আমরা জানতাম উইকেট কেমন আচরণ করছে।’

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন