• বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    জরিমানা হলো তামিম-ইমরুলের

    ১৭তম ওভারের শেষ বল। রশিদ খানের বলটা মারতে গিয়ে ঠিকঠাক ব্যাটেবলে হলো না রশিদ খানের। সমস্বরে ক্যাচের জন্য আবেদন করে উঠল কুমিল্লা, কিন্তু আম্পায়ার র‍্যামন মার্টিনেজ তাতে সাড়া দিলেন না। লিটন দাশ সঙ্গে সঙ্গেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্তিয়া দেখালেন, অধিনায়ক তামিম ইকবালও একটু উত্তেজিত হয়েই তেড়ে এলেন আম্পায়ারের দিকে। আম্পায়ারদের সঙ্গে অসাদচরণের জন্য জরিমানা করা হয়েছে তামিম-লিটন দুজনকেই, দুজনেরই ম্যাচ ফির ৫০ ভাগ করে কাটা যাবে।

    শুরুতে মেহেদী হাসানের একটা আউট দেননি এই মার্টিনেজই, তখনও তামিমরা প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। পরে বোপারার আউটটাও যখন দেওয়া হলো নাল, তামিম উত্তেজিত হয়ে দুই আঙুল দেখিয়ে বলছিলেন, দুই বার তাদের নিশ্চিত আউট দেওয়া হয়নি। রিপ্লেতে দেখা গেছে, বল বোপারার ব্যাটেরর কানা ছুঁয়ে গিয়েছিল। যদিও ওই আউটের জন্য শেষ পর্যন্ত মূল্য দিতে হয়নি কুমিল্লাকে, ম্যাচটাও জিতেছে।

    তবে ম্যাচ রেফারির নোটবুকে ঠিকই উঠে গেছে তামিম-লিটনের নাম। লেভেল দুই নিয়মভঙ্গের কারণে দুজনের ম্যাচ ফি জরিমানা করা হয়েছে তো বটেই, তিনটি করে ডিমেরিট পয়েন্টও যোগ হয়েছে নামের পাশে। আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী চার পয়েন্ট যোগ হলেই এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা পেতে হবে। দুজনেই শাস্তিটা মেনে নেওয়ায় আনুষ্ঠানিক কোনো শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন