• অস্ট্রেলিয়ার আরব আমিরাত সফর
  • " />

     

    অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং যেন 'কার ক্র্যাশ'

     

    অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের তখন ছয় ওভারও পেরোয়নি। ১৫৬ রান তাড়া করতে নেমে স্কোরবোর্ডে তখন মাত্র ২২ রান। এর মাঝেই পড়ে গেছে ৬ উইকেট! ভয়াবহ এই ব্যাটিং বিপর্যয়ে টালমাটাল অজিরা শেষ পর্যন্ত করতে পেরেছে ৮৯ রান। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৬৬ রানে হারের পর অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলছেন, দলের ব্যাটিং বিপর্যয়টা রীতিমত কার ক্র্যাশের মতো!

    প্রথম ওভারের তৃতীয় বলেই শূন্য রানে ফেরেন ফিঞ্চ। এরপর শুধুই অজি ব্যাটসম্যানদের যাওয়া আসার মিছিল। তিন অংক ছুঁয়েছেন মাত্র তিনজন। কোল্টার নাইল ৩৪ ও অ্যাস্টন অ্যাগার ১৯ না করলে তো লজ্জাটা আরও বাড়ত অজিদের। ৮৯ রানে অলআউট হয়েছে তারা, টি-টোয়েন্টিতে এটা তাদের তৃতীয় সর্বনিম্ন স্কোর।

    ফিঞ্চ দলের এরকম ব্যাটিং কিছুতেই মানতে পারছেন না, ‘পাওয়ার প্লেতে আমাদের ব্যাটিং ভয়াবহ ছিল। এটা দেখে তো মনে হচ্ছিল গাড়ি ক্র্যাশ করেছে! এত কম রানে অলআউট হয়ে যাওয়ার কথা একদমই ভাবিনি। আমাদের লক্ষ্য ছিল ম্যাচটা জেতার।’

    বাজে ব্যাটিংয়ের দায়ভার নিজের কাঁধেই নিচ্ছেন অধিনায়ক ফিঞ্চ, ‘ওপেনার হিসেবে দায়িত্বটা আমার কাঁধেই সবচেয়ে বেশি আসে। দলকে ভালো সূচনা এনে দিতে পারিনি। এরকম একটা লক্ষ্য তাড়া করতে নামলে ওপেনিং জুটিতে ভালো রান আসতে হয়। এটা করলে হয়ত বাকিরা এত তাড়াতাড়ি আউট হতো না। আমাদের ফিল্ডিং খুব একটা খারাপ ছিল না, বোলিংও মোটামুটি হয়েছে। কিন্তু ব্যাটিংটাই সব ডুবিয়েছে।’

    আগামীকাল সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তান।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন