• ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ
  • " />

     

    জাতীয় দলে খেলার জন্য কাউকে বাধ্য করা যায় না: রামদিন

     

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটে এই সংকটটা চলছে বেশ কয়েক বছর ধরেই। বিশ্বজুড়ে চলা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগের হাতছানিতে সাড়া দিয়ে জাতীয় দলকে না বলছেন অনেক ক্রিকেটারই। ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেলদের পর সর্বশেষ এই তালিকায় যোগ হয়েছেন তরুণ ওপেনার এভিন লুইসও। ক্যারিবিয়ান উইকেটরক্ষক দিনেশ রামদিন বলছেন, ক্রিকেটের আধুনিক যুগে কাউকে জাতীয় দলে খেলার জন্য বাধ্য করা যায় না।

    বোর্ডের সাথে চুক্তি সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের পাশাপাশি আইপিএলসহ ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটে টাকার ঝনঝনানি; বহু ক্রিকেটারের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু থেকে তাই সরে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। টি-টোয়েন্টি লিগের জন্য জাতীয় দল থেকে বিরতি নিচ্ছেন অনেকেই। অনেকে আবার আগেভাগেই ঘোষণা দিচ্ছেন অবসরের।

    জাতীয় দলকে না বলার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি দেখা গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজেই। গেইলের মতো সিনিয়র অনেক ক্রিকেটারই হরহামেশাই অনুপস্থিত থাকছেন জাতীয় দলের ম্যাচে। রামদিন মনে করেন, জাতীয় দলের খেলার ব্যাপারে বোর্ডের হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই, ‘এটা আসলে টেবিলে রাখা অনেক খাবারের মাঝে পছন্দের খাবার বেছে নেওয়ার মতো। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি যদি ক্রিকেটারদের দলে নেয়, আর ক্রিকেটাররাও সেখানে খেলতে চায়, তাহলে সেখানে বাধা দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।’

    সিনিয়ররা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটকে বেছে নেওয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্ষতি হয়েছে বলেই মানছেন রামদিন, ‘টি-টোয়েন্টি খেলা ক্রিকেটারদের দিকে তাকালে বুঝতে পারবেন, তারা আমাদের জাতীয় দলে না খেলায় কতটুক ক্ষতি হয়েছে দলের। বিশ্বের সব ফ্র্যাঞ্চাইজিই তাদের চায়, এটার জন্য আমরা ভুগছি। ভারত সফরেও আমাদের সিনিয়র ক্রিকেটাররা আসেননি, অনেক তরুণও তাদের পথে হাঁটছেন। এজন্যই আমরা চলতি সিরিজেও খারাপ করছি ও ২-০ তে পিছিয়ে পড়েছি।’

    রাতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।