• পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড সিরিজ
  • " />

     

    • পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড সিরিজ

    মন্থর দিনে আজহারে ভর পাকিস্তানের

    তৃতীয় টেস্ট, আবুধাবি
    নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস ২৭৪ (উইলিয়ামসন ৮৯, ওয়াটলিং ৭৭, বিলাল ৫/৬৫, ইয়াসির ৩/৭৫)
    পাকিস্তান ১ম ইনিংস* ১৩৯/৩ (আজহার ৬২*, হারিস ৩৪, বোল্ট ২/৩৯, সাউদি ১/২৭) 
    পাকিস্তান ৭ উইকেটে ১৩৫ রানে পিছিয়ে 



    প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের ২৭৪ রানের জবাবে ১৭ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলা পাকিস্তানকে পথ দেখিয়ে নিয়ে চলেছেন আজহার আলি। আবুধাবিতে আরেকটি মন্থর দিনশেষে পাকিস্তান এখন ৭ উইকেট হাতে পিছিয়ে ১৩৫ রানে। ৬২ রানে অপরাজিত আজহারের সঙ্গী আসাদ শফিক টিকে আছেন ২৬ রানে। ২.৩৫ রানরেট ছিল নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান তাদের ৬১ ওভারে রান তুলেছে ২.২৭ হারে। 

    নিউজিল্যান্ডকে শুরুতে ব্রেকথ্রু এনে দিয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট, দুই পাকিস্তানী ওপেনারই আউট হয়েছেন প্রায় একইভাবে। অফস্টাম্পের বাইরের বলে এজড হয়েছেন হাফিজ, দিনশেষে অবসরের ঘোষণা দেওয়া ব্যাটসম্যান নিজের শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে রান করতে পারেননি কোনও। বাউন্সারে প্রথমে ইমামকে অপ্রস্তুত করে দেওয়ার পর ফুললেংথে সফল হয়েছেন বোল্ট, দুইটি ক্যাচই স্লিপে নিয়েছেন টিম সাউদি। 

    হারিস সোহেলকে নিয়ে এরপর পুনর্গঠনের কাজটা শুরু করেছেন আজহার। চা-বিরতির আগে আর উইকেট হারায়নি পাকিস্তান। দুজনের ৬৮ রানের জুটি ভেঙেছেন সাউদি, লেংথ বলে কাট করতে গিয়ে হারিস কট-বিহাইন্ড হয়েছেন ৩৪ রান করে। 

    আসাদ শফিক খুব দৃঢ় ছিলেন না, তবে ৮৫ বলে ২৬ রানের ইনিংসে আজহারকে সঙ্গ দিয়েছেন ভালই। আগের টেস্তে ৮১ রান করা আজহার কাল আবারও খুঁজে-ফিরবেন টেস্ট সেঞ্চুরি, মিসবাহ-উল-হক ও ইউনুস খানের অবসরের পর যেটার দেখা পাননি তিনি। 

    সকালে নিউজিল্যান্ডের শেষ ৩ উইকেটের দেখা পাকিস্তান পেয়েছে ৪৫ রানের বিনিময়ে। অভিষিক্ত উইলিয়াম সমারভিল সঙ্গটা ভালই দিয়েছেন বিজে ওয়াটলিংকে, ৯৯ বল খেলেছেন ১২ রান করতে। তবে এরপর ততটা দৃঢ় থাকতে পারেননি আজাজ প্যাটেল ও ট্রেন্ট বোল্ট। তিনটি উইকেটই নিয়েছেন বিলাল আসিফ, সমারভিল ও বোল্ট হয়েছেন বোল্ড, ক্যাচ দিয়েছেন প্যাটেল। এ ৩ উইকেট দিয়ে ক্যারিয়ারে ৫ম ম্যাচে এসে দ্বিতীয়বার ইনিংসে ৫ উইকেট পেলেন তিনি। 

    ওয়াটলিং টেইলএন্ডারদের সঙ্গেও স্ট্রাইক নিজের কাছে রাখার সেরকম চেষ্টা করেননি, ২৫০ বলে ৭৭ রান করে শেষ পর্যন্ত তাই একলা অপরাজিতই থেকে গেছেন।