• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    জাতীয় দলে নিয়মিত হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন না ফোকস

    নিজের অভিষেকেই এমন পরিস্থিতির মুখে পড়বেন, সেটা হয়তো ভাবেননি তিনি। ইংল্যান্ডের বিপদের মুহূর্তে বেন ফোকসের দুর্দান্ত ব্যাটিংই শেষ পর্যন্ত আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের জয় এনে দিয়েছে। ৬১ রানের অপরাজিত ইনিংসটির পরেও ফোকস বলছেন, জাতীয় দলে এখনই নিয়মিত হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন না তিনি।

    ফোকস যখন ক্রিজে আসেন, ৬৬ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ইংল্যান্ড তখন রীতিমত ধুঁকছে। ইংলিশদের বিপক্ষে ঐতিহাসিক ওয়ানডে জয়ের স্বপ্নও দেখা শুরু করেছিল আইরিশরা। ফোকসের ৭৬ বলে ৬১ রানের ইনিংসটি শেষ পর্যন্ত রক্ষা করেছে ইংল্যান্ডকে। ডেভিড উইলি ও টম কারানের সাথে জুটি গড়ে জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছেন ফোকস। নিজের টেস্ট অভিষেকে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন, ওয়ানডে অভিষেকেও সেটার পুনরাবৃত্তি ঘটালেন তিনি।

    তবে এমন অভিষেকের পরেও দলে নিয়মিত হওয়ার আশা দেখছেন না উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ফোকস। দলে জস বাটলার ও জনি বেইরস্টোর মতো উইকেটকিপার থাকায় তার সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা কম বলেই মানছেন, ‘আমি কি দলে নিয়মিত হতে পারবো? খুব সম্ভবত না! বাটলার এখন সেরা উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান, বেইরস্টো দ্বিতীয় সেরা। আসলে আমার যে অভিষেক হবে, এটাই তো ভাবিনি। তবে এভাবে সুযোগ পেয়ে দলকে জেতাতে পেরেছি, এতেই ভালো লাগছে।’

     

     

    বিপদের মুখে ঠান্ডা মাথায় ব্যাটিং করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন ফোকস। ফোকস বলছেন, এরকম পরিস্থিতিতে ব্যাটিং করতেই বেশি ভালো লাগে তার, ‘৫ উইকেট হারানোর পর নতুনভাবে সব শুরু করতে হতো। এরকম পরিস্থিতিতে ব্যাটিং করেই আসলে অভ্যস্ত আমি। কন্ডিশন খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল। ক্রিজে টিকে থাকাই ছিল আসল লক্ষ্য। এরপর সুযোগ পেলেই রান নিয়েছি। প্রতিপক্ষের লক্ষ্যটা ছিল অনেক কম, এটাই সুবিধা ছিল। কখনোই রান রেট খুব বেশি বাড়েনি।’

    আগামীকাল পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অভিষেক হতে পারে ফোকসের। টেস্ট, ওয়ানডের মতো টি-টোয়েন্টিতেও কি অভিষেকটা রাঙ্গিয়ে তুলতে পারবেন?