• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং দিয়ে বিশ্বকাপে রান আটকাতে চান ফিঞ্চ

    গ্লেন ম্যাক্সওয়েল কিছুদিন আগেই বলেছিলেন, এবারের বিশ্বকাপে অনেক বেশি রান উঠবে। সেই আভাস পাওয়া যাচ্ছে ইংল্যান্ড-পাকিস্তান ওয়ানডে সিরিজেই। বিশ্বকাপে যেন প্রতিপক্ষ বেশি রান তুলতে না পারে, সেই প্রস্তুতিটা বেশ ভালোভাবেই নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলছেন, বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং দিয়েই ব্যাটসম্যানদের রান তোলা থেকে আটকে রাখবে তাঁর বোলাররা।

    পাকিস্তান-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ওয়ানডেতে উঠেছে ৭৩৪ রান। স্কোরবোর্ডে ৩৭৩ রান তুলেও শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত হারের শঙ্কায় ছিল ইংল্যান্ড। শেষ পর্যন্ত লড়াই করে ১২ রানে হেরেছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষকে বড় লক্ষ্য দিলেই যে সহজ জয় আসবে না, সেটা বুঝতে পারছেন ফিঞ্চও। এজন্যই মাঝের ওভারে বোলারদের কৌশলী বোলিংয়ের জন্য প্রস্তুত হতে বলছেন তিনি, ‘গত কয়েক বছরে ওয়ানডেতে এটা খুব বেশি হচ্ছে। মিডল ওভারে যারা বেশি উইকেট নেয়, তাঁরাই ম্যাচ জেতে। এই ব্যাপারটায় আমাদের মনযোগী হতে হবে। বিশ্বকাপের যে পিচ থাকবে সেখানে অনেক বড় স্কোর করেও জেতা কষ্টকর হতে পারে।’

    মিচেল স্টার্ক ও প্যাট কামিন্স মিডল ওভারে বড় ভূমিকা রাখবেন, বলছেন ফিঞ্চের, ‘স্টার্ক-কামিন্সকে দিয়ে মিডল ওভারে বল করালে সেটা কার্যকরী হবে। যদি প্রতিপক্ষ উড়ন্ত সূচনা করে, তাহলে তাদের মতো বোলারকে বারবার পরিবর্তন করে আক্রমণে আনতে হবে। পাওয়ারপ্লেতে যেন নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পাওয়া যায়, সেটাই হবে আসল চেষ্টা।’

     

     

    অস্ট্রেলিয়ার শেষ দুটি ওয়ানডে সিরিজে স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা নিয়েছেন ১৪ উইকেট। বিশ্বকাপেও এই ফর্ম ধরে রাখবেন জাম্পা, আশা ফিঞ্চের, ‘ভারত ও আরব আমিরাতে সে দুর্দান্ত বোলিং করেছে। সেখানে বল খুব বেশি টার্ন করেনি, প্রতিপক্ষ ছিল বিশ্বমানের ব্যাটসম্যানরা। ইংল্যান্ডের পিচেও তেমন স্পিন ধরবে না হয়ত। আশা করি সে আগের সিরিজের মতো এখানেও ভালো করবে।’