• আয়ারল্যান্ড ত্রিদেশীয় সিরিজ ২০১৯
  • " />

     

    আবার ওয়ানডেতে এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব

    গত বছরেই সাকিব আল হাসানকে টপকে ওয়ানডের শীর্ষ অলরাউন্ডারের সিংহাসন নিজের করে নিয়েছিলেন রশিদ খান। এশিয়া কাপের পর সাকিব মাঠের বাইরে ছিলেন বেশ কদিন, এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে দলে ফিরলেও নিউজিল্যান্ড সিরিজে আবার ছিটকে গেছেন। অবশেষে ত্রিদেশীয় সিরিজে ব্যাটে-বলে দুর্দান্তভাবেই ফিরেছেন সাকিব। সেই সঙ্গে হারানো সিংহাসনটাও ফিরে পেয়েছেন, ওয়ানডেতে শীর্ষ অলরাউন্ডার এখন সাকিবই।

    নতুন র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী সাকিবের রেটিং পয়েন্ট এখন ৩৫৯। ৩৩৯ রেটিং নিয়ে রশীদ খান নেমে গেছেন দুইয়ে, তিনে মোহাম্মদ  নবী। চারে মাছেন পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিম, পাঁচে মিচেল স্যান্টনার। 

    প্রায় তিন মাস পর মাঠে নেমে ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরুটা দারুণ হয়েছিল সাকিবের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৩ রানে ১ উইকেট নেওয়ার পর করেছিলেন অপরাজিত ৬১ রান। পরের ম্যাচে মাত্র ২৭ রান দিয়ে ১ উইকেট, রান করলেন ২৯। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একটু খরুচে হলেও ঠিকই ফিফটি করলেন। সেই ম্যাচেই চোট পেয়ে বাইরে চলে গেলেন, ফিফটির বেশি আর করতে পারলেন না । ফাইনালে তো মাঠেই নামতে পারেননি, যদিও গুরুতর নয় তাঁর চোট। বিশ্বকাপে সুস্থ হয়েই মাঠে নামার কথা। 

    ২০০৯ সালে প্রথম ওয়ানডেতে অলরাউন্ডারের মধ্যে সবার ওপরে উঠেছিলেন সাকিব। এরপর কখনো কখনো এক থেকে দুইয়ে নেমে গেছেন, ২০১৪ সালে নেমে গেছেন তিনেও। তবে সেসব খুব অল্প সময়ের জন্য, গত এক দশক ধরে তিন ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি সময় শীর্ষে থাকা অলরাউন্ডার তিনিই। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন