• কোপা দেল রে
  • " />

     

    এত কিছুর পরও ভালভার্দেকে চান পিকেরা

    ট্রেবলের আশা শেষ হয়ে গেছে আগেই। বার্সেলোনার সামনে ছিল ডাবল জিতে মৌসুম শেষ করার সুযোগ। পাঁচ বছর পর কোপা ডেল রের ফাইনালে হেরে সেটাও হয়নি লিওনেল মেসিদের। ভ্যালেন্সিয়ার কাছে হেরে হতাশা নিয়ে মৌসুম শেষ হওয়ার পর বার্সা কোচ এরনেস্তো ভালভার্দের দায়িত্বে থাকা নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। তবে বার্সা ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে জানালেন, এমন হারের পরেও ভালভার্দেকেই কোচ হিসেবে দেখতে চান দলের সবাই।

    চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে ৩-০ গোলে জিতেও লিভারপুলের মাঠে ৪-০ গোলে হেরে বিদায় নিয়েছিল বার্সা। সেই হতাশা ভুলে কোপা ডেল রে জিতে ডাবল নিয়েই মৌসুমটা শেষ করতে চেয়েছিলেন মেসিরা। ভ্যালেন্সিয়া হতে দিল না সেটাও। ২-১ গোলে হেরে শুধু লিগ শিরোপা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হলো বার্সাকে।

    কোপার হারের পর ভালভার্দের চাকরি নিয়েই এখন টানাটানি। পিকে অবশ্য পরের মৌসুমে তাকেই চাইছেন, ‘কোচের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা শঙ্কিত নই। মৌসুম নিয়ে অনেক আলোচনা চলছে, কোন কোন জায়গায় আমরা উন্নতি করতে পারি সেটা নিয়েও কথা হচ্ছে। কোচ থাকবেন কিনা, সেটায় তো আমাদের হাত নেই। তবে আমাদের সবার পক্ষ থেকে এটা পরিষ্কার করে দেওয়া হয়েছে, আমরা ভালভার্দেকেই কোচ হিসেবে দেখতে চাই।’

    বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট জোসেফ বার্তোমেউও বলছেন, দলের ব্যর্থতায় ভালভার্দে দায়ী করা উচিত না, ‘ফাইনালের হারের জন্য কোচ একা দায়ী না। আমরা অনেক সুযোগ পেয়েছিলাম, কিন্তু গোল করতে পারিনি। ভ্যালেন্সিয়া সেটাই করেছে, এজন্যই তাঁরা জিতেছে। আমরা এবার লিগ জিতেছি, তাই মৌসুমটাকে পুরোপুরি খারাপ বলা যাবে না। দুইটা খারাপ ম্যাচের জন্য দুটি শিরোপা হাতছাড়া হয়েছে।’

     

     

    এদিকে ভালভার্দে বলছেন, ডাবল না জিতলেও নির্ভার আছেন তিনি, ‘আমি ঠিক আছি। জিতলে অবশ্যই আরও খুশি হতাম। আমরা মৌসুমজুড়ে যেভাবে খেলে এসেছি, সেই অনুযায়ী শেষটা করতে পারিনি। এক মাস আগে লা লিগা জেতার পর ট্রেবল জয়ের স্বপ্ন দেখেছিলাম। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও কোপা ডেল রেতে বাজেভাবে হেরে শিরোপা খুইয়েছি। এমন হার মেনে নেওয়া কঠিন। একজন কোচ হেরে গেলে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়াতে চায়। আমিও সেটাই চাই।’

    বার্সেলোনা শেষ পর্যন্ত ভালভার্দেকে দায়িত্বে রাখবে কিনা, সেটা জানা যাবে দ্রুতই।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন