• লা লিগা
  • " />

     

    কিক অফের আগে: ন্যু ক্যাম্পে মেসিবিহীন বার্সেলোনার ভ্যালেন্সিয়া চ্যালেঞ্জ

    কবে, কখন

    বার্সেলোনা বনাম ভ্যালন্সিয়া

    লা লিগা ২০১৯-২০, ন্যু ক্যাম্প 

    ১৫ সেপ্টেম্বর, বাংলাদেশ সময় রাত ১টা; ফেসবুক লাইভ 


    অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের কাছে হারের পর রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে বড় জয় দিয়ে লা লিগায় স্বরূপে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছিল বার্সেলোনা। কিন্তু ওসাসুনার বিপক্ষে আবারও পয়েন্ট হারিয়ে অবস্থা এখন কিছুটা বেগতিকই স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের। ইনজুরির কারণে লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজের শূন্যস্থানটা ঠিক পূরণ করতে পারেননি আঁতোয়া গ্রিযমানরা। মৌসুমের টানা চতুর্থ ম্যাচে মেসিকে ছাড়া নামতে হচ্ছে এর্নেস্তো ভালভার্দের দলকে। প্রতিপক্ষ ভ্যালেন্সিয়া, যাদের কাছে গত মৌসুমে কোপা ডেল রে ফাইনাল হেরেছিল বার্সা। ভালভার্দে জানেন, সমালোচনার তুমুল ঝড় অন্তত কয়েকদিনের জন্য কমাতে হলেও ন্যু ক্যাম্পে জয়টা আবশ্যক তার দলের।

    সাম্প্রতিক ফলাফলের চেয়েও হয়তো খেলার ধরণের কারণেই সমর্থকদের রোষানলে পড়তে হচ্ছে বার্সাকে। ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং, গ্রিযমানদের মত ফুটবলারকে কাজে লাগাতে পারছেন না ভালভার্দে, দলের ধারাবাহিকতার অভাবে সমর্থকদের মূল অভিযোগটা তারই বিরুদ্ধে। ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে অবশ্য দায়ভারটা নিজের কাঁধেই তুলে নিলেন সাবেক বিলবাও ম্যানেজার, 'লা লিগায় আমাদের শুরুটা ভাল হয়নি একেবারেই। এর পুরো দায়ভার আমি নিচ্ছি। নতুন কিছু ট্যাকটিক্স খাটিয়ে দেখাটা কাজে দেয়নি। তবে এখনই সব শেষ হয়ে যায়নি। ভ্যালেন্সিয়া অবশ্যই কঠোর প্রতিপক্ষ, কোপার ফাইনাল জেতায় তাদের আত্মবিশ্বাসও তুঙ্গে থাকবে। কিন্তু এরকম পরিস্থিতিতে আমরা আগেও পড়েছি, এবং উতরেও গেছি। আশা করি ন্যু ক্যাম্পে এই ম্যাচ দিয়েই সমর্থকদের বিশ্বাস ফিরে পাব।'

     

     

    মাঠের বাইরে এবং ভেতরে সমস্যার শেষ নেই বার্সার। তবে খুব একটা স্বস্তিতে নেই তাদের প্রতিপক্ষ ভ্যালেন্সিয়াও। ব্যক্তিগত রেষারেষির কারণে ম্যানেজার মার্সেলিনো গোমেজকে বরখাস্ত করেছেন 'লস চে'দের চেয়ারম্যান পিটার লিম। ভ্যালেন্সিয়াকে ১১ বছর পর প্রথম কোনও শিরোপা জেতানো এবং চ্যাম্পিয়নস লিগে ফিরিয়ে আনা মার্সেলিনোর বিদায় কোনওভাবেই মানতে পারছে না ভ্যালেন্সিয়া সমর্থকেরা। এরই মধ্যে লিমের পদত্যাগের দাবিতে এস্তাদিও মেস্তায়ার বাইরে মিছিল করেছেন তারা। কিছুটা বেকায়দায়ই তাই পড়েছেন ভ্যালেন্সিয়ার নতুন ম্যানেজার আলবার্তো সেলাদেস।

     

     

    তবে হুলেন লোপেতেগির অধীনে সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ সহকারী কোচের দাবি; শুধুমাত্র বার্সাকে নিয়েই ভাবছে তার দল, 'আসলে পুরো ব্যাপারটিই (মার্সেলিনোর বরখাস্ত হওয়া) কিছুটা আকস্মিকই ছিল দলের জন্য। তবে ছেলেরা সর্বোচ্চ পর্যায়ের পেশাদারিত্ব দেখিয়েছে। মাঠের বাইরে কী হচ্ছে, তা নিয়ে কারো ভ্রূক্ষেপ নেই, সবাই চায় বার্সার বিপক্ষে ভাল করতে।' রিয়ালের সাথে সাবেক সম্পর্কটা বার্সাকে হারানোর পেছনে বাড়তি অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে কি না, এমন প্রশ্ন হেসেই উড়িয়ে দিলেন সেলাদেস, 'দেখুন, ফুটবলে আপনার অনেক অতীত থাকবে। ওসবকে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজে লাগানো আমার কাছে কিছুটা বোকামিই মনে হয়। আমি এখন ভ্যালেন্সিয়ার ম্যানেজার, তাদের হয়েই বার্সাকে হারাতে চাই। অন্য কোনও অনুপ্রেরণা নেই আমার।'

     

     

    ন্যু ক্যাম্পে বার্সার হয়ে ইনজুরির কারণে মেসির মত থাকছেন না ফ্রেঞ্চ জুটি উসমান ডেম্বেলে এবং স্যামুয়েল উমতিতি। হাঁটুর ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছেন লুইস সুয়ারেজ। আক্রমণভাগে তাই হয়তো একসাথে দেখা যেতে পারে গ্রিযমান-সুয়ারেজকে। তাদের সাথে নামতে পারেন বার্সার নতুন তরুণ সেনসেশন আনসুমান ফাতি। বার্সার মত ইনজুরি নিয়ে এত চিন্তিত থাকতে হচ্ছে না সেলাদেসকে, ভ্যালেন্সিয়ার হয়ে প্রথম ম্যাচে পূর্ণশক্তির স্কোয়াডই পাচ্ছেন তিনি।

     

    সম্ভাব্য একাদশ

    বার্সেলোনা (৪-৩-৩): টার স্টেগান; সেমেদো, পিকে, লংলে, আলবা; রবার্তো, বুস্কেটস, ডি ইয়ং; গ্রিযমান, সুয়ারেজ, ফাতি

    ভ্যালেন্সিয়া (৪-৪-২): সিলিসেন; ওয়াস, গারায়, দিয়াখাবি, গায়া; গুইদেস, ককোলান, পারেহো, তোরেস, সোলের; গামেইরো, রদ্রিগো

     

    সংখ্যায় সংখ্যায়

    • ২০১৮-১৯ মৌসুমে লিগে বার্সা-ভ্যালেন্সিয়ার দুই ম্যাচই হয়েছিল ড্র।
    • ২০১৬ সালে শেষবার ন্যু ক্যাম্পে জিতেছিল 'লস চে'রা।
    • ২০১৯-২০ মৌসুমে তিন ম্যাচ শেষে দুই দলেরই পয়েন্ট সমান (৪)।