• লা লিগা
  • " />

     

    কিক অফের আগে: লেভান্তের বিপক্ষে অভিষেক হচ্ছে হ্যাজার্ডের?

    কবে, কখন

    রিয়াল মাদ্রিদ বনাম লেভান্তে

    লা লিগা ২০১৯-২০, এস্তাদিও সান্তিয়াগো বার্নাব্যু

    ১৪ সেপ্টেম্বর, বাংলাদেশ সময় বিকেল ৫টা; ফেসবুক লাইভ


    মৌসুমের শুরুতে ইনজুরির কারণে রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে আনুষ্ঠানিক অভিষেকটা পিছিয়ে গিয়েছিল এডেন হ্যাজার্ডের। তবে আন্তর্জাতিক বিরতিতে সম্পূর্ণ সেরে উঠেছেন তিনি। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে লেভান্তের বিপক্ষেই হয়তো শুরু হতে যাচ্ছে হ্যাজার্ডের রিয়াল অধ্যায়। ২০১৯-২০ লা লিগায় প্রথম ম্যাচে দারুণ জয় পেলেও দুই ড্র, একাধিক ইনজুরিতে জর্জর রিয়াল স্বস্তিতে নেই খুব একটা। লেভান্তের বিপক্ষে দলের ওপর চাপ কমানো এবং অনেক প্রশ্নের জবাব দেওয়ার ম্যাচে তাই হয়তো হ্যাজার্ডের দিকেই তাকিয়ে থাকবে রিয়ালের সমর্থকেরা।

    ২০১৯-২০ মৌসুমের মাত্র সপ্তাহ তিনেক পেরুতেই ইনজুরিতে পড়েছেন রিয়ালের মোট এগারো জন। হামেস রদ্রিগেজ, হ্যাজার্ড, রদ্রিগোরা ফিরলেও নতুন করে ছিটকে গেছেন লুকা মদ্রিচ, ইস্কো এবং ফেদেরিকো ভালভার্দে। লেভান্তের বিপক্ষে তাই মাত্র তিনজন মিডফিল্ডার নিয়ে স্কোয়াড ঘোষণা করেছে রিয়াল। ম্যানেজার জিনেদিন জিদান জানিয়েছেন; ঘন ঘন ইনজুরির কারণে ট্যাকটিক্স এবং দল সাজাতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনিও, 'নিয়ন্ত্রণে নেই এমন ব্যাপারের কারণে আমাদের বারবার পিছিয়ে পড়তে হচ্ছে। এখনও পূর্ণ শক্তির একাদশ নামাতে পারিনি আমি, যা খুবই হতাশাজনক। তবে যা হয়ে গেছে, তাতে আমাদের হাত নেই; তাই এসব নিয়ে আর মাথা ঘামাচ্ছি না। স্কোয়াডে যারা আছে, তাদের সামর্থ্য প্রশ্নাতীত। আশা করি আবারও জয়ের ধারায় ফিরতে পারব আমরা।'

     

     

    মৌসুমের শুরুটা রিয়ালের জন্য প্রত্যাশিত না হলেও ব্যক্তিগতভাবে দুর্দান্ত ফর্মে আছেন গ্যারেথ বেল। আগের ম্যাচে লাল কার্ড দেখায় লেভান্তের বিপক্ষে থাকছেন না তিনি। কিন্তু যে বেলকে রিয়াল ছাড়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন মৌসুম শুরুর আগে; ঘুরেফিরে আবারও সেই বেলের ব্যাপারে জবাবদিহিতা করতে হল জিদানকে, 'আসলে বেলকে বলির পাঁঠা বানানোর ব্যাপারে দোষ সবারই। ব্যাপারটি যেভাবে বোঝাতে চেয়েছিলাম, তার চেয়ে অনেক অতিরঞ্জিত করা হয়েছে। তবে এগুলো এখন অতীতের বিষয়। গ্যারেথ নিজেও জানে আমি তার ওপর ভরসা রাখছি; সে নিজেও সেরাটা দিতেই প্রস্তুত প্রত্যেক ম্যাচে। এখন শুধু সামনের কথাই চিন্তা করতে চাই, সেটিই সবার জন্য মঙ্গলজনক।'

    জিদানের মত অবশ্য এত দুশ্চিন্তা করতে হচ্ছে না লেভান্তে ম্যানেজার পাকো লোপেজকে। লা লিগার প্রথম তিন ম্যাচ শেষে ছয় পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার-এ আছে তারা। গত দুই মৌসুমে অল্পের জন্য অবনমন এড়ানো লেভান্তের ম্যানেজার লোপেজ মনে করেন; এবার সবাইকে চমকে দেবে তার দল, 'প্রথম ম্যাচে হেরে যাওয়ার পর জয়ের ধারায় ফেরার ক্ষুধাটা বেড়ে গিয়েছিল কয়েকগুণ। পরের দুই ম্যাচে আমাদের খেলায়ই সেটা ফুটে উঠেছে। বরাবরের মত এবারও ফেভারিট রিয়ালই, কিন্তু আত্মবিশ্বাসে কোনও ঘাটতি নেই আমাদের।'

     

     

    ইনজুরির কারণে রিয়ালের হয়ে থাকছেন না মদ্রিচ, ইস্কো, ভালভার্দে। অনুশীলনে ফিরলেও এখনও ম্যাচফিট নন ব্রাহিম দিয়াজ, লেভান্তের বিপক্ষে স্কোয়াডে নেই তিনিও। চ্যাম্পিয়নস লিগে বৃহস্পতিবার পিএসজির মুখোমুখি হবে রিয়াল, বহিষ্কারাদেশের কারণে সে ম্যাচে থাকবেন না অধিনায়ক সার্জিও রামোস। পিএসজি ম্যাচের আগে ঝালিয়ে নিতে তাই হয়তো লেভান্তের বিপক্ষে রিয়ালের একাদশে দেখা যেতে পারে নতুন সেন্টারব্যাক এডার মিলিতাওকে। মিডফিল্ডে একাধিক ইনজুরির কারণে বার্নাব্যুতে টানা দ্বিতীয় ম্যাচের মত শুরু থেকেই নামতে পারেন হামেস।  রিয়ালের মত স্কোয়াড নিয়ে এত ভাবতে হচ্ছে না লোপেজকে, পূর্ণশক্তির স্কোয়াডই পাচ্ছেন তিনি।

     

    সম্ভাব্য একাদশ

    রিয়াল মাদ্রিদ (৪-৩-৩): কর্তোয়া; কারভাহাল, ভারান, রামোস, মার্সেলো; ক্রুস, কাসেমিরো, হামেস; ভাজকেজ, বেনজেমা, হ্যাজার্ড

    লেভান্তে (৪-৪-২): ফার্নান্দেজ; মিরামন, ভেজো, পস্তিগো, ক্লার্ক; মোরালেস, গোমেজ, ভুকচেভিচ, রোচিনা; মার্তি, মায়োরাল

     

    সংখ্যায় সংখ্যায়

    • ২০১৫ সালের পর বার্নব্যুতে রিয়ালের কাছে হারেনি লেভান্তে। 
    • দুই দলের ২৩ দেখার ১৬টিতেই জিতেছে রিয়াল।
    • ২০১৮-১৯ মৌসুমে বার্নাব্যুতে রিয়ালকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল লেভান্তে।