• কোপা দেল রে
  • " />

     

    কোপা ডেল রে জেতার কারণেই বরখাস্ত ভ্যালেন্সিয়া কোচ!

    তিনদিন আগে ভ্যালেন্সিয়ার কোচের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে মার্সেলিনো গার্সিয়াকে। কিন্তু ঠিক কী কারণে বরখাস্ত করা হলো ১১ বছর পর ভ্যালেন্সিয়াকে শিরোপা জয়ের স্বাদ পাইয়ে দেওয়া এই কোচকে? গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে মার্সেলিনো ফাটালেন বোমা। তিনি বলছেন, ক্লাব কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে গিয়ে কোপা ডেল রে জেতার জন্যই নাকি তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে! 

    দুই মৌসুম আগে ভ্যালেন্সিয়ার দায়িত্ব নিয়েছিলেন মার্সেলিনো। পরপর দুইবার তার অধীনে চতুর্থ স্থানে থেকে লিগ শেষ করেছে ভ্যালেন্সিয়া। তবে সেরা সাফল্যটা এসেছে গতবারের কোপা ডেল রেতে। বার্সেলোনাকে ২-১ গোলে হারিয়ে এগারো বছর পর কোনো শিরোপা জিতেছিল মার্সেলিলোর ভ্যালেন্সিয়া।

    সেই মার্সেলিলোকেই গত বুধবার বরখাস্ত করেছেন ক্লাব মালিক পিটার লিম। মার্সেলিনো জানালেন, কোপা ডেল রে জেতাই কাল হয়েছে তার, ‘আমি শতভাগ নিশ্চিত বরখাস্তের সিদ্ধান্তটা তারা নিয়েছে কোপা ডেল রে জয়ের কারণে। মৌসুম চলার সময় আমাদের কাছে সরাসরি ও পরোক্ষভাবে নির্দেশনা এসেছিল কোপার দিকে মনোযোগ না দিতে। কিন্তু সমর্থক, ফুটবলার, কোচিং স্টাফরা এই টুর্নামেন্টে লড়াই করতে চেয়েছে। ক্লাব কর্তৃপক্ষ কেনো কোপার শিরোপা চান না, সেটা আমাকে কখনোই পরিষ্কার করে বলা হয়নি। শুধু এটুক বলা হয়েছিল, এটা ‘ছোট’ টুর্নামেন্ট, আমাদের মনোযোগ চ্যাম্পিয়নস লিগেই রাখা উচিত।’ 

     

     

    কোপা ডেল রে জেতার পর ক্লাব কর্তৃপক্ষের শুভেচ্ছাও পাননি মার্সেলিনো, ‘শিরোপা জেতার পর আমরা ক্লাব প্রেসিডেন্ট থেকে কোনো শুভেচ্ছা পাইনি। যখন তার সাথে সিঙ্গাপুরে দেখা হয়েছে, তখন তিনি শুধু চ্যাম্পিয়নস লিগে কোয়ালিফাই করার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন।’ 

    মার্সেলিনোকে বরখাস্ত করে নতুন কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অ্যালবার্ট সেলাদেসকে। ক্লাবের এই সিদ্ধান্তে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন ভ্যালেন্সিয়া সমর্থকরা। মাঠের সামনে প্রতিবাদও জানিয়েছেন তারা। মার্সেলিনো সমর্থকদের অনুরোধ করেছেন, তারা যেন নতুন কোচের পাশে থাকেন, ‘আমাকে যেভাবে সমর্থকরা গ্রহণ করেছিল, নিজেকে সৌভাগ্যবান ভেবেছিলাম। দুই বছর পর এমন ভালোবাসা নিয়ে বিদায় বলতে পেরে গর্বিত। এখানে অনেক স্মৃতি আছে। আমি চাই সবাই যেন সেলাদেসকে সমর্থন করে। তাকে শুভকামনা জানাতে চাই।’ 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন