• রিও অলিম্পিক ২০১৬
  • " />

     

    টোকিও অলিম্পিক আর কাতার বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না রাশিয়া

    চার বছরের জন্য সব ধরনের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ হয়েছে রাশিয়া। যার মানে সামনের ২০২০ টোকিও অলিম্পিক ও ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে খেলা হচ্ছে না রাশিয়ার। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ওয়াডা) এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটির ওপর।

    ড্রাগ কেলেংকারিতে অনেক দিন ধরেই টালমাটাল রাশিয়া। ২০১৬ রিও অলিম্পিকেও অংশ নিতে পারেনি এই নিষেধাজ্ঞার কারণে। রাশিয়ান অ্যাথলেটরা নিষিদ্ধ ড্রাগ ব্যবহার করেন, এমন একটা অভিযোগ অনেক আগে থেকেই ছিল। এই বছরের জানুয়ারিতে তদন্তের পর প্রমাণ হয়েছে, রাশিয়ার জাতীয় অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির নিজেরাই পরীক্ষা করার অযোগ্য। বেশ কিছু নমুনায় গড়বড় করার অভিযোগ এসেছিল তাদের বিরুদ্ধে। এরপর দীর্ঘ তদন্তের পরিপেক্ষিতেই এসেছে এই ঘোষণা। যার মানে সামনের বছর দেশ হিসেবে খেলাধূলার কোনো বড় আসরে অংশ নিতে পারবেন না রাশিয়া। তবে দেশটির যেসব অ্যাথলেট বা খেলোয়ারেরা ডোপ পাপ থেকে মুক্ত, তারা পরীক্ষা সাপেক্ষে চাইলে অন্য কোনো দেশের হয়ে অংশ নিতে পারবেন।

    সামনের বছর ইউরোও অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রাশিয়ায়, কিছু ম্যাচ হওয়ার কথা সেন্ট পিটার্সবার্গে।গ্রুপ বি তে বেলজিয়াম, ফিনল্যান্ড আর ডেনমার্কের সঙ্গে খেলার কথা রাশিয়ার। তবে এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বাধা নেই তাদের। ওয়াডার হিসেবে ইউরোকে বৈশ্বিক প্রতিযোগিতার আওতামুক্ত রাখা হয়েছে।  

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন