• বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর ২০২০
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    বিসিবির 'অপেক্ষা' শেষ হয়নি, বিরতি অনুশীলনে

    বায়ো-সিকিউর বলয়ে থেকে ক্যাম্প, এরপর শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে যাত্রা-- হওয়ার কথা ছিল এমন। তবে জাতীয় দলের সেই ক্যাম্প শেষ হয়ে গেলেও শ্রীলঙ্কা ‘এখনই’ যাওয়া হচ্ছে না জাতীয় দলের। ক্যাম্পশেষে ক্রিকেটারদের অনুশীলনে ৩ দিন বিরতি দিচ্ছে বিসিবি, আর আগের মতোই এখনও ‘আশা করছে’ শ্রীলঙ্কার কাছ থেকে আপডেট পাওয়ার। সফর আদৌ হবে কিনা, হলেও কবে হবে, সে নিয়ে ‘২-৩ দিনের মাঝেই ফল পাওয়া যাবে’, এমন আশা তাদের। তবে এখন পর্যন্ত অফিশিয়াল কোনো কথা তাদের কাছ থেকে শোনেনি বিসিবি। 

    শ্রীলঙ্কা সফরকে সামনে রেখে ক্রিকেটারদের হোটেলে রেখে ‘বায়ো-সিকিউর’ বলয়ের মাঝে ক্যাম্প শুরু হয়েছিল ২১ সেপ্টেম্বর। শনিবার ছিল এর শেষদিন। তবে এদিনও সে সফর নিয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি বিসিবি। কোচ, প্রধান নির্বাহীর সঙ্গে মিটিংয়ের পর তাই অনুশীলনে বিরতি দেওয়া হয়েছে, এমন জানিয়েছেন ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান। এ নিয়ে শুধু বিসিবি নয়, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটও ‘ইতিবাচক’ বলে মনে করেন তিনি। 

    “আমাদের কাছে অফিশিয়ালি ই-মেইল বা কিছুই আসে নাই। বাইরের কিছু নিয়ে তো বলতে পারব না। আপাতত যেটা করেছি, যেহেতু সফর পেছাচ্ছে, আমাদের সময় আছে, আমরা আরও কিছুদিন অপেক্ষা করব। শেষ যেটা বলেছে, যেহেতু ওদের অধীনে (এই ব্যাপারটা) নেই, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যাপার, ওরা আশা করেছিল, তবে এখন আশা করছে ২-৩ দিনের মধ্যে জানাবে”, সাংবাদিকদের বলেছেন আকরাম। 

    এই সফর নিয়ে বিসিবিই বেশি চেষ্টা করছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে আকরাম বলেছেন, “(বিসিবি) মরিয়া না, যেহেতু আমাদের হাতে সময় আছে, ওদের হাতে আছে, ওরা বারবার অনুরোধ করছে। এমন না যে ওরা চাচ্ছে না, আমরা জোর করে যাচ্ছি। আমরা যেতেই চাইলে ওদের শর্ত মেনে যেতে পারতাম। আমাদের প্রাধান্য সবার আগে যেটা পাবে, সেটা হচ্ছে যাতে ক্রিকেটাররা ‘কমফোর্টেবল’ থাকে, যাতে মানসিকভাবে ক্লান্ত না থাকে, এবং পারফরম্যান্সটা যাতে বের করে আনতে পারে।”

    সফর হলেও ম্যাচসংখ্যা কমবে না, এমন বলেছেন তিনি। সিরিজে হওয়ার কথা থাকা তিনটি টেস্ট আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভুক্ত। 

    শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে অনিশ্চয়তার মাঝে আপাতত ধোঁয়াশার ভেতর আছে দেশের ক্রিকেটও। তবে আকরাম বলছেন, এ সফর না হলেও পরিকল্পনা আছে তাদের, “আমাদের যে পরিকল্পনা আছে, সেখানে ৩ দিন বিরতি দিয়েছি। আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্ট বলেছেন, সফর না হলে ঘরোয়া (ক্রিকেট) করব। আমাদের ‘প্ল্যান এ, বি, সি’ সবই আছে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন