• আইসিসি টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০১৬
  • " />

     

    স্যামির নামে স্টেডিয়াম!

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে তিনি নেই। ওয়ানডে দলে জায়গা পান না প্রায় এক বছর হলো। বোর্ডের সাথে বেতন-ভাতার ঝামেলায় গেইল-ব্রাভোদের মত জাতীয় দল থেকে একরকম ব্রাত্যই ছিলেন ড্যারেন স্যামি। দেড় মাস আগেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তাঁদের খেলাটাই ছিল অনিশ্চয়তার মধ্যে। তবে বিশ্বকাপ বলে কথা; ডাক পড়লো স্যামি বাহিনীর। এবং তাঁরা এলেন, দেখলেন, জয় করলেন!

     

    রেকর্ড দুইবার টি-২০ বিশ্বকাপ জেতার কীর্তিটা এখন শুধুই ওয়েস্ট ইন্ডিজের। আর দুই বিশ্বকাপেই ক্যারিবিয়ানদের নেতৃত্ব দিয়েছেন সেন্ট লুসিয়ার ড্যারেন স্যামি। ঘরের ছেলের এমন কীর্তির প্রাপ্য সম্মানটুকুই দিল স্যামির দেশ। সেন্ট লুসিয়ার প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধান স্টেডিয়ামের নামকরন করা হবে এই ক্যারিবিয়ান অধিনায়কের নামে! তাছাড়া স্টেডিয়ামের একটি স্ট্যান্ডের নাম দেয়া হচ্ছে দেশটির আরেক ক্রিকেটার জনসন চার্লসের নামে।

     

    সেন্ট লুসিয়ার বোসেজো স্টেডিয়ামটিরই নতুন নামকরণ হতে যাচ্ছে ড্যারেন স্যামির নামে

     

    নিজের দেশের কাছ থেকে এত বড় সম্মান পেয়ে বেশ অভিভূত হয়েছেন স্যামি, “আমি সত্যিই সম্মানিত বোধ করছি। আমি কৃতজ্ঞ এবং ভাগ্যবান। আমরা সবসময় জানি সেন্ট লুসিয়া তার লোকদের ভালোবাসে। এয়ারপোর্টে যে পরিমান ভালোবাসা, সম্মান ও প্রশংসা পেলাম, সেটা সত্যিই অসাধারন! অসংখ্য ধন্যবাদ।”

     

    সেন্ট লুসিয়ায় এক অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানেই এই ঘোষণা দেন সেন্ট লুসিয়ার প্রধানমন্ত্রী কেনি ডি অ্যান্থনি। এ ব্যাপারে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট বোর্ড এন্টিগার হেডকোয়ার্টার থেকে এক বিবৃতিতে জানায়, “অধিনায়ক স্যামি এবং ওপেনার চার্লসকে তাঁদের দেশ সেন্ট লুসিয়া যে সম্মানটুকু দিয়েছে সেজন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে তাঁদেরকে অভিনন্দন।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন