• ফ্রেঞ্চ ওপেন ২০১৬
  • " />

     

    ফ্রেঞ্চ ওপেনে নেই ফেদেরার!

    ক্যারিয়ারের অর্জন ১৭টি গ্র্যান্ড স্লাম। তবে লাল মাটির দুর্গ ভেদ করতে পেরেছিলেন মাত্র একবারই, ২০০৯ সালে। প্যারিসে শেষবার ফাইনাল খেলেছেন ২০১১ সালে। ফ্রেঞ্চ ওপেনের সঙ্গে সম্পর্কটা ঠিক ‘ফেড-এক্সপ্রেস’সুলভ নয় রজার ফেদেরারের। তবুও, গ্রান্ড স্ল্যাম হিসেবে ফ্রেঞ্চ ওপেনের মাহাত্মটা নিশ্চয়ই কম নয় তাঁর কাছে! লাল মাটির কোর্টে তাঁকে দেখতেও নিশ্চয়ই মুখিয়ে ছিলেন ভক্ত অনুরাগীরা! তবে ফেড-ভক্তদের জন্য ‘দুঃসংবাদ’টা দিয়েছেন সুইস তারকা নিজেই। ২৩ মে থেকে শুরু হওয়া একমাত্র ‘ক্লে-কোর্ট’ গ্রান্ড স্ল্যামে খেলবেন না রজার ফেদেরার।

    টানা ৬৫টি গ্রান্ড স্ল্যাম খেলার পর মিস করতে যাচ্ছেন প্রথমবার, এই শতাব্দীও ফেদেরারহীন গ্রান্ড স্ল্যাম দেখবে প্রথমবার!

     

    নিজের ওয়েবসাইটে ফেদেরার জানিয়েছেন, ‘এটা ঘোষণা করা আমার জন্য দুঃখের, এ বছর ফ্রেঞ্চ ওপেনে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি। ফিটনেস নিয়ে আমি উন্নতিই করছি, তবে পুরো প্রস্তুত না হয়ে এ টুর্নামেন্টে খেলার মতো অপ্রয়োজনীয় ঝুঁকি নেয়ার মতো অবস্থাতে নেই।‘

    ফেদেরারের সরে যাওয়াতে অবশ্য একটা সুবিধাই হলো রাফায়েল নাদালের। এখন নাদালই চার নম্বর বাছাই।

     

    নিতান্ত বাধ্য হয়েই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফেড-এক্সপ্রেস, ‘সিদ্ধান্তটা সহজ ছিল না। তবে এ মৌসুম আর আমার বাকী ক্যারিয়ার দীর্ঘায়িত করতেই সিদ্ধান্তটা নিয়েছি। আসছে ঘাসের কোর্টের মৌসুমে ফেরার আগে ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে আমি আগের মতোই উদ্দীপিত ও রোমাঞ্চিত থাকবো।'

     

    ফ্রান্সের দর্শকদের জন্য অবশ্য আশার কথাও শুনিয়েছেন ফেদেরার,  '২০১৭ তে রোঁলা গাঁরোতে ফেরার জন্য আমি মুখিয়ে আছি।'

     

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন