• ইংল্যান্ড-পাকিস্তান
  • " />

     

    সরফরাজের সেঞ্চুরি ছাপিয়ে রুটের ফিফটি

    এক অঙ্কের রানেই নেই তিন উইকেট। এরপর টানা তিনটি ফিফটি জুটি। ওয়ানডে ক্রিকেটে ধপাস করে পড়ে গিয়ে উঠে দাঁড়ানোর এমন ঘটনা এই প্রথম। যাঁর মূল কৃতিত্বটা সরফরাজ আহমেদের। কিন্তু দিনের শেষে সেই সরফরাজই পরাজিত দলে, ম্যাচসেরা ৮৯ রানের ইনিংস খেলা জো রুট!

    দুই রানে নেই তিন উইকেট। সরফরাজকে ব্যাটিংয়ে নামতে হলো তাই বড্ড আগেই। আর যখন সরফরাজের ইনিংস শেষ হলো, পাকিস্তানের রান ছয় উইকেটে ২০২। বাবার আজম, শোয়েব মালিক ও ইমাদ ওয়াসিমের সঙ্গে তিনটি ফিফটি জুটি গড়েছেন, ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরিটাও পেয়েছেন এর আগে। সরফরাজ আহমেদের ১০৫ রানের ইনিংসটা পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ের চরম বিপর্যয় থেকে রক্ষা করেছে। কিন্তু লর্ডসে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে পরাজয় থেকে পাকিস্তান রক্ষা পায়নি। ইংল্যান্ডের সঙ্গে হেরেছে চার উইকেটে।

    সরফরাজের ইনিংস যদি হয় পাকিস্তান ইনিংসের আলোচিত দিক, ইংল্যান্ডের ইনিংসে জো রুটের ইনিংস। শূন্য রানেই ফিরে গিয়েছিলেন আগের ম্যাচের অন্যতম নায়ক জ্যাসন রয়, ৩৫ রানে তাঁর সঙ্গী অ্যালেক্স হেলসও। তবে ছিলেন রুট। তিনি এসেছিলেন তিন নম্বরে, ফিরেছেন সরফরাজের মতোই ছয় নম্বর উইকেটে। তবে ততক্ষণে জয়ের কাছাকাছি চলে গেছে ইংল্যান্ড!

    অধিনায়ক ওইন মরগানের সঙ্গে ১১২ রানের জুটির পর বেন স্টোকসের সঙ্গে ৫৬ রানের জুটি, রুটের ৮৯ রানের ইনিংস এর মাঝে। ওয়ানডেতে টানা চতুর্থ ফিফটি এটি রুটের, টেস্ট কিংবা ওয়ানডে, রুটের ব্যাট হাসছেই। হাসি ফিরেছে মরগানের ব্যাটেও। টানা ১২ ইনিংস পর ফিফটি পেরুনো স্কোর করলেন ইংলিশ অধিনায়ক, আজকের ৬৮ রানের আগে শেষ ৭৬ রান করেছিলেন গত বছর, আবুধাবিতে।

    আর ওয়ানডেতে পাকিস্তান তাই খুঁজেই ফিরছে নিজেদের। টেস্ট সিরিজে ১-২ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েও ড্র করেছিল মিসবাহ-উল-হকের পাকিস্তান, অন্তত সেরকম কিছু করতে হলেও তাই পরের ম্যাচটা জিততে হবে আজহার আলির দলকে। নটিংহ্যামে ৩০ আগস্ট কি পাকিস্তান ‘চেনা’ রুপ থেকে বেরুতে পারবে?

    নাকি রঙ্গীন পোশাকে চলবে ইংল্যান্ডেরই দাপট!

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন