• সেরা ফুটবল ক্লাব
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    পগবা-রুনিকে বেতন দিতে পারবেন তেভেজ

    শৈশবের ক্লাব বোকা জুনিয়র্স ছেড়ে গতকাল যোগ দিয়েছেন চাইনিজ সুপার লিগের ক্লাব সাংহাই শেনহুয়াতে। চুক্তি করেই গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বেতন পাওয়া খেলোয়াড় এখন আর্জেন্টিনার কার্লোস তেভেজ। ২ বছরের চুক্তিতে প্রতি সপ্তাহে ৬,১৫,০০০ ব্রিটিশ পাউন্ড পকেটে পুরবেন সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা।

    চুক্তিতে সই করে ছাড়িয়ে গেছেন এই সপ্তাহেই ৪ লাখ পাউন্ড (সাপ্তাহিক) বেতনে সাংহাই এসআইপিজিতে যোগ দেওয়া ব্রাজিলিয়ান অস্কারকে। বেতনের হিসেবে পেছনে ফেলেছেন বর্তমান ফুটবলের দুই সেরা নাম ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো আর লিওনেল মেসিকেও। 

    চুক্তি অনুসারে তেভেজের বেতনটার একটু ব্যবচ্ছেদ করা যাক। দুই বছরের চুক্তিতে শেনহুয়াতে ৬৩.৯ মিলিয়ন পাউন্ড পাবেন তেভেজ। বছরে প্রায় ৩২ মিলিয়ন পাউন্ড। সে হিসেব অনুযায়ী, প্রতি মাসে ২৭ লাখ পাউন্ড পাবেন সাবেক সিটি অধিনায়ক। এখানেই শেষ নয়। ভয়ে চমকে ওঠার মত বেতনে প্রতিদিন প্রায় ৮৮,০০০ পাউন্ড আর ঘন্টায় প্রায় ৪ হাজার পাউন্ড কামাবেন এল অ্যাপাচে। মিনিটের হিসেবে সংখ্যাটা ৬১, আর সেকেন্ডে ১ পাউন্ডের কিছু বেশি।

    চলুন, ফুটবল জগতে হৈচৈ ফেলে দেওয়া এই দলবদলের হিসেবটা এবার একটু অন্যভাবে মেলানো যাক। আর্সেনালের দুই তারকা মেসুত ওজিল (২,৫০,০০০) ও অ্যালেক্সিস সানচেজের (২,৫০,০০০) সাপ্তাহিক বেতন মেটানো যাবে তেভেজের বেতন দিয়ে। বাকি অর্থে কুলিয়ে যাবে আর্সেনালের প্রতিদ্বন্দ্বী টটেনহাম স্ট্রাইকার হ্যারি কেইনের ১ লাখ পাউন্ডের বেতনটাও! আবার, প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা তিন খেলোয়াড় - হ্যাজার্ড (২,২০,০০০) ডেভিড সিলভা (২,০০,০০০) ও কেভিন ডি ব্রুইনের (১,৭০,০০০) সাপ্তাহিক বেতন পরিশোধ করলেও কিছু অর্থ থেকে যাবে তেভেজের হাতে। আর যদি তেভেজ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ বেতনধারী দুই খেলোয়াড় পল পগবা (২,৯০,০০০) আর ওয়েইন রুনির (২,৬০,০০০) সাপ্তাহিক পাওনাটা বুঝিয়ে দেন, তারপরও তার হাতে বাকি থাকবে ৬৫,০০০ পাউন্ড।

     

     

    ধরুন, তেভেজ হয়ত সুস্বাদু সব চাইনিজ খাবারের লোভেই রাজি হয়েছেন সাংহাইতে যেতে। ম্যানচেস্টারে থাকাকালীন ভোজনরসিক পরিচিতি পাওয়া তেভেজ যদি নিজের প্রিয় মেন্যু (হাঁসের মাংস, ফ্রাইড রাইস, স্টেক, ফলের জুস) খেতে চান? সপ্তাহে ১৭,৬২১ বার খেতে পারবেন। তাতে অরুচি ধরলে ১১৩,৮৮৯ পিস স্প্রিং রোল তো আছেই।

    তেভেজের নতুন ক্লাবের শহরের মানুষজনের গড় সাপ্তাহিক আয় ১৯৯৯ ইউয়ান। সে হিসেবে সপ্তাহে সাংহাই বাসিন্দাদের গড় আয়ের ২,৬১,৭০২ গুণ বেশি কামাবেন তিনি। যদি নিজের বাড়ির কথা মনে পড়ে? বুয়েন্স আইরেসের ফিরতি বিমান (১০৬০ পাউন্ড) ধরতে পারবেন সপ্তাহে ৫৮০ বার। যদি কোনোভাবে সময় মেলাতে পারেন আর কি!  

    আর একটা তথ্য দিয়ে শেষ করা যাক। বিশাল সব সংখ্যায় ভরা এই খবরটা পড়তে যদি আপনার ২ মিনিটও সময় লাগে, সেই সময়েই তেভেজ কামাচ্ছেন ১১৫ পাউন্ড (প্রায় ১১ হাজার টাকা)!  

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন